এক ভদ্রলোকের গাড়ি পার্কিং থেকে চুরি হয়ে গেল। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও গাড়ির হদিস পেলেন না।
তবে দুই দিন পর হারানো গাড়িটাকে আগের জায়গায় দেখে অবাক। হারানো বাহন ফিরে পেয়ে ভীষণ আনন্দিত হয়ে দৌড়ে গাড়ির কাছে গেলেন। ড্রাইভিং সিটে একটা মুখবদ্ধ খাম। খুলে দেখলেন ভেতরে দেওয়া চিরকূটে লেখা, “মায়ের শরীর হঠাৎ খারাপ হয়ে যাওয়ায় হাসপাতালে নেওয়া প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল কিন্তু একে তো রাত, তার ওপর ছুটির কারণে কোনো গাড়ি না পাওয়ায় আপনার গাড়ি ব্যবহার করতে বাধ্য হয়েছিলাম। ”
বিনীত ভঙ্গিতে আরো লেখা রয়েছে, “আপনাকে কষ্ট দেওয়ার জন্য দুঃখিত। গাড়িতে যত পেট্রল ছিল, সব আগের মতো আছে। তা ছাড়া আপনার গাড়ির খারাপ তালাটাও ঠিক করে দিয়েছি। গাড়ি ব্যবহারের বিনিময়ে আপনার ও আপনার পরিবারের জন্য ১০টা সিনেমার টিকিট দিলাম।

এই চিঠির খামের মধ্যেই সেগুলো পাবেন।... Read More>>

কখনো আল্লাহ আমাদের দুর্বল করে দেন, অধিক শক্তিশালী হবার জন্য
কখনো আল্লাহ আমাদের হৃদয় চূর্ণ করে দেন, আমাদের পরিপূর্ণ করার জন্য
কখনো আল্লাহ আমাদের দুঃখ সইতে দেন, অধিক সহনশীল হবার জন্য
কখনো আল্লাহ আমাদের ব্যর্থতা দেন, জীবন সংগ্রামে জয়ী হবার জন্য
কখনো আল্লাহ আমাদের একাকীত্ব দেন, অধিক সচেতন হবার জন্য
কখনো আল্লাহ আমাদের সর্বস্ব ছিনিয়ে নেন, আল্লাহর রহমতের মূল্য বুঝার জন্য !
.
"এবং অবশ্যই আমি তোমাদিগকে পরীক্ষা করব কিছুটা ভয়, ক্ষুধা, মাল ও জানের ক্ষতি ও ফল-ফসল বিনষ্টের মাধ্যমে। তবে সুসংবাদ দাও সবরকারীদের। "
[সূরা আল বাক্বারাহ -১৫৫]... Read More>>

স্বাস্থ্য এবং পুষ্টি বিষয়ে আসলে বিভ্রান্ত হওয়া সহজ। কেননা, স্বাস্থ্য ও পুষ্টি বিষয়ক পরামর্শের ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতাসম্পন্ন পুষ্টিবিদদের মাঝে মতপার্থক্য থাকার কারণে সঠিক দিকনির্দেশনা লাভ করা সত্যি বেশ কঠিন ব্যাপার। তবুও, সমস্ত মতপার্থক্য থাকা সত্ত্বেও, কিছু পরামর্শ গবেষণার মধ্য দিয়ে সুস্বাস্থ্যের জন্য অনুসরণীয় হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করতে সমর্থ হয়েছে।

এই পোস্টে সেই সব বিজ্ঞানসম্মত স্বাস্থ্য ও পুষ্টি বিষয়ক প্রমাণিত পরামর্শ থেকে ২৭টি গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ আপনাদের জন্য নিম্নে উপস্থাপন করা হল:-
১. চিনির ক্যালোরি পান করবেন না

চিনিযুক্ত পানীয় হল আপনার শরীরের মেদ বৃদ্ধির অন্যতম প্রভাবক অর্থাৎ এটি সবচেয়ে মেদযুক্ত আইটেমগুলির মধ্যে একটি।। কঠিন খাবার থেকে গ্রহীত ক্যালরিকে মস্তিষ্ক যেভাবে প্রক্রিয়াজাত করে থাকে,... Read More>>

ঘুম বেশি হচ্ছে!!
ঘুমের সময় টা আসলে নির্ভর করে মানুষের বয়স,শারীরিক পরিশ্রম, লাইফ স্টাইল,সাস্থ্য ইত্যাদির উপর...এগুলোর উপর ভিত্তি করে মানুষের ঘুমের সময় কম বেশি হতে পারে... কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত ঘুম শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর... অতিরিক্ত ঘুমানো আসলে একটা রোগ যাকে Hypersomnia বলা হয়ে থাকে... এ রোগ হয়ে থাকলে মানুষ সাধারণত দিনে বা রাতে খুব বেশি পরিমানে ঘুমিয়ে থাকে...মানুষ খুব বেশি পরিমানে ঘুমালে অলস হয়ে যায়, কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলে, মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়...অতিরিক্ত ঘুম স্থুলতা,daibetes,মাথা বেথা,শরীরের বেথা,হতাশার অন্যতম কারণ.
এছাড়া অতিরিক্ত ঘুমানের ফলে আপনার হার্ট এর অসুখ ও বাড়িয়ে দিবে,ব্লাড প্রেসার বাড়াবে,রক্তে কলেস্টেরল এর মাত্র বাড়িয়ে দিবে...আপনার শরীরের ন্যাচারাল বডি ডিফেন্স কে নষ্ট করে দিবে... জরিপে দেখা গেছে যে কোনো প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ... Read More>>

জীবনের চলার পথে কখনোই দিশেহারা হয়ে ভেঙ্গে পড়ো না। সৃষ্টিকর্তার উপর আস্থা রাখো। তিনিই সবশ্রেষ্ঠ পথ প্রদর্শক।
... Read More>>

#সর্তকতামূলক_পোস্ট

বাচ্চাকে #মুরগীর #কলিজা খাওয়ানো মানেই #বিষ খাওয়ানো ঃ

কলিজা বাচ্চার জন্য উপকারী বিধায় বেশিরভাগ মায়েরাই বাচ্চাকে কলিজা খাইয়ে থাকেন। কিন্তু বর্তমানে কলিজা খাওয়ানো আর বিষের বোতল খাওয়ানো একই সমান হয়ে গিয়েছে।

বাজার থেকে কেনা কক আর ফার্মের- ২ ধরণের মুরিগীকেই যে ট্যানারির বর্জ্য থেকে তৈরীকৃত খাদ্য খাওয়ানো হয়, তাতে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর বিষাক্ত ক্রোমিয়াম থাকে।

কলিজা হলো দেহের শোধনাগার। তাই কলিজা,মুরগীকে বাচানোর জন্য বেশিরভাগ ক্রোমিয়াম সংগ্রহ করে নিজের মধ্যে জমিয়ে রাখে।

সাম্প্রতিক কালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ডঃ আবুল হোসেনের গবেষনায় দেখা গিয়েছে মুরগীর দেহের মধ্যে কলিজাতে ৬১২ মাইক্রোগাম ক্রোমিয়াম জমে (যেখানে ক্রোমিয়াম খাওয়ার নিরাপদ মাত্রা হলো ৩৫ মাইক্রোগাম)।

তবে... Read More>>

"তুমি আমার থেকে বেশি বোঝো"- এই কথাটা অফিসের বস কিংবা বয়সে বড় কারো মুখ থেকে প্রায়ই শুনা যায়। বয়স বা পদবীর সাথে কম বা বেশি বোঝা না বোঝার সম্পর্ক খুবই ক্ষীণ। বোঝার ব্যাপারটা পুরুপুরি নির্ভর করে কে কতটা খোলা মন নিয়ে নিয়মিত চারপাশের এবং ইতিহাসের খবর রাখে। ২৩ বছরের একজন মানুষ অনায়াসেই ৫৬ বছর বয়সীর চেয়ে কোনো বিষয়ে বেশি বোঝতেই পারে। একজন কোনো বিষয়ে একটু বেশি বা ভালো বোঝলে আমাদের উচিত খোলা মনে তার কাছ থেকে বোঝে নেয়া হোক সেটা অফিস,বাসা কিংবা শিক্ষালয়।
আমি কিছুদিন আগেও স্ন্যাপচ্যাট ব্যাপারটা বোঝতাম না আমার অফিসের একজন ইন্টার্ন আমাকে হাতে-কলমে এবং স্ক্রিনে বোঝিয়ে দিলো ,আমার গাড়ির চালক রফিক আমাকে এখনো প্রতিদিনই গাড়ির ব্যাপারে কিছু না কিছু বোঝিয়ে যাচ্ছে ,আমার ৮ বছরের মেয়ে আমাকে এখন প্রতিদিনই ইউটিউব এর... Read More>>

মানুষ আছে মানবতা নেই ............ Read More>>

সম্প্রতি ডেঙ্গু-মশা ছড়ানোর ভয়ে বাড়ি, ছাদ ও বারান্দার টবের গাছ কেটে ফেলা, এমনকি সম্প্রতি জনপ্রিয় হওয়া ছাদবাগান করাও বন্ধ করে দিচ্ছেন শহুরে বাসিন্দারা। আর নার্সারিগুলোতেও গাছ বেচা-বিক্রি কমার তথ্যও মিলছে অহরহ। অবাক করা ঘটনা হলো নগর কর্তৃপক্ষ ডেঙ্গু-প্রতিরোধে মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার করায় মামলা ও জরিমানার আতঙ্কে ভাড়াটিয়াদের জোরপূর্বক ছাদ বা বারান্দায় রাখা টবের গাছ সরিয়ে নিতে বাধ্য করছেন অনেক বাড়িওয়ালা। আবার কৌশলে ছাদবাগানের গাছ উপড়ে ফেলা বা কেটে ফেলার মতো তথ্যও মিলছে। পাশাপাশি ফ্ল্যাট বাড়িগুলোতেও ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের অতি উৎসাহী সদস্যরাও অজ্ঞতাবশত সবুজায়ন ধ্বংসে মেতে উঠেছেন, যা শহরের পরিবেশ-প্রতিবেশের জন্য আরেক হুমকি বলে মনে করি। কি করলে বারান্দা বা ছাদবাগান ডেঙ্গু-মশামুক্ত রেখে সবুজায়ন টিকিয়ে রাখা... Read More>>

“যদি নিজ নিজ অবস্থান থেকে রক্তদান কার্যক্রমে এগিয়ে আসতো,
তাহলে এই দেশে রক্তের অভাবে একটি প্রাণও ঝরে নাহি পরতো”

যেমন-
#শিক্ষকঃ- ওনি যদি একজন রক্তদাতা হইতো এবং ওনার ছাত্র-ছাত্রীদের রক্তদানে উৎসাহ প্রদান করতো, তাহলে ছাত্র-ছাত্রীরা রক্তদানে উৎসাহ পেত এবং তারাও রক্তদানে এগিয়ে আসতো।

#লেখক- একজন লেখক যদি রক্তদান নিয়ে কোন গল্প বা উপন্যাস লিখতো, তাহলে ওনার এই গল্প বা উপন্যাস পড়ে অসংখ্য মানুষ রক্তদানে উৎসাহি হইতো।

#কবিঃ- যদি কোন কবি রক্তদান নিয়ে একটি কবিতা লিখতো, তাহলে ওনার কবিতা পড়ে অসংখ্য মানুষ রক্তদানে উৎসাহি হইতো।

#সাংবাদিকঃ- একজন সাংবাদিক যদি ওনার পত্রিকায় রক্তদানে উৎসাহকরণ কোন কলাম লিখতো তাহলে যারা এই লেখাটি পড়বে, তারা রক্তদানে উৎসাহি হইতো।

#ছাত্র_ছাত্রীঃ- কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় অথবা মেডিকেলে অধ্যয়নরত... Read More>>

মানবদেহের অ’র্ধশত রোগের সমাধান রয়েছে রসুনে

রসুন মসলা উপাদান হলেও এর ভেষজ গুণের অভাব নেই। মানবদেহের প্রায় অ’র্ধশত স’মস্যার সমাধান হবে প্রতিদিন দুই কোয়া রসুন খেলে।

ইউনিভার্সিটি অব হেলথ অ্যান্ড মেডিকেল সায়েন্সের গবেষণায় উঠে এসেছে রসুনের নানা উপকারিতা। চলুন জেনে নেয়া যাক সেগুলো…

হৃৎপিণ্ডের সুস্থতায় রসুন বড় ধরনের ভূমিকা পালন করতে পারে। আবার কোলেস্টেরল কমাতেও সাহায্য করে। এতে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমে। শিরা-উপশিরায় প্লাক জমতে বাধা দেয়।

রক্ষা করে শিরা-উপশিরায় মেদ জমার মা’রাত্মক রোগ অথেরোসেক্লরোসিসের হাত থেকে। এটি উচ্চর’ক্তচাপের স’মস্যাও দূর করে।

গিঁটবাতের স’মস্যা থেকে রক্ষা করে। ফ্লু এবং শ্বাস-প্রশ্বাসের স’মস্যা দূর করতে সহায়তা করে। অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান দেহে খারাপ ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ, জন্ম... Read More>>

এই দৃশ্যগুলো আর কোনদিন খুঁজে পাওয়া যাবে না... Read More>>

হার্ট ভালো রাখে, ক্যানসারের ঝুঁকি কমায় জলপাই

সুপরিচিত ফল জলপাই। শীতকালীন এ ফল নানা পুষ্টিগুণে ভরপুর। আছে স্বাস্থ্য উপকারিতা।

পুষ্টিগুণ: এটি ভিটামিন সির একটি ভালো উৎস।



গবেষণায় দেখা গেছে, এই ফল খনিজ, ভিটামিন, ফাইবার এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ।
প্রতি ১০০ গ্রাম জলপাইয়ে খাদ্যশক্তি ৭০ কিলোক্যালরি, ৯ দশমিক ৭ শর্করা, ৫৯ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম ও ১৩ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি।

স্বাস্থ্য উপকারিতা:

১. জলপাইয়ের তেলে পা্ওয়া যায় ফ্যাটি অ্যাসিড ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা ত্বক ও চুলের যত্নে কাজ করে। জলপাইয়ের তেল চুলের গোড়া মজবুত করে। চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা দূর হয়। জলপাইয়ের ভিটামিন-ই ত্বকে মসৃণ ভাব আনে।

২. জলপাইয়ের তেল হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমায়।

৩. নিয়মিত জলপাই খেলে গ্যাস্ট্রিক ও আলসার কম হয়। বিপাকক্রিয়া... Read More>>

মানুষের চাওয়াঃ
❐ উকিল চায় আপনি ঝামেলায় পড়ুন।
❐ ডাক্তার চায় আপনি অসুখে পড়ুন।
❐ পুলিশ চায় আপনি বেআইনী কাজ করুন।
❐ ইলেকট্রিশিয়ান চায় আপনার বাড়ির ওয়্যারিং জ্বলে যাক।
❐ বাড়িওয়ালা চায় আপনি যেন জীবনে বাড়ি করতে না পারেন।
❐ মুচি চায় আপনার নতুন জুতো ছিঁড়ে যাক।
❐ ব্যাংকার চায় আপনি টাকা লোন নিয়ে ঋনগ্রস্থ হোন।
❐ প্রাইভেট টিউটর চায় আপনার সন্তান পাঠ্যপুস্তকের পড়া কম বুঝুক।
**শুধুমাত্র চোর চায় আপনি ধনী হোন আর মহাসুখে নাক ডেকে ঘুমান।

৩টি জিনিসের উপর ভরসা করা ঠিক নয়।
১| নদীর পাড়ের বাড়ি
২। ব্রেক ছাড়া গাড়ি
৩। ঘর ছাড়া নারী
তিনটি জিনিস একবার আসেঃ
(১) মাতা-পিতা
(২) সৌন্দর্য্য
(৩) যৌবন
তিনটি জিনিস ফিরিয়ে আনা যায় নাঃ
(১) বন্দুকের গুলি
(২) কথা
(৩) রূহ
তিনটি জিনিস মৃত্যুর পর উপকারে আসেঃ
(১)সু-সন্তান
(২)ভাল... Read More>>

পড়াশুনায় মন বসে না??

পড়তে আসলে কারোরই ভালো লাগে না, 😡 কিন্তু পড়ালেখা আমাদের সবাইকেই করতে হয়। পড়াটা আসলে যতটা না ভালো লাগা থেকে করতে হয়, তার চাইতে পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হয়। কবে আমার পড়া ভালো লাগবে, তখন আমি পড়বো, সেই আশায় থাকলে আসলে কখনো পড়া হবে না। তাই পড়ার অভ্যাসটা একরকম নিজের সাথে জোর করেই গড়ে তুলতে হবে। শুরুতে আপনি এক সপ্তাহ টানা প্রতিদিন ৩০ মিনিট করে পড়ুন। একেবারে না পড়ার চাইতে এটা অন্তত কিছু পড়া হলো। সহজে মেনে চলতে পারবেন এরকম একটা রুটিন করে রাখুন। দিনে ২/৩ ঘণ্টা করে প্রতিদিন পড়লেই কিন্তু অনেক পড়া হয়, ভালো ফলাফল লাভ করা যায়। প্রথম সপ্তাহের পর দ্বিতীয় সপ্তাহে সময়টা ১ ঘণ্টা করে ফেলুন। এরপরের সপ্তাহে ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট, তারপরের সপ্তাহে ২ ঘণ্টা করে পড়ুন।প্রতি ৩০ মিনিট পরপর বিরতি নিবেন। নিজেকে একটা টার্গেট দিবেন, যেমন এই... Read More>>

12-Nov-2019 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 4185 জন)
প্রশ্নঃ শিশুদের জন্য খেলাধুলা ‘মানসিক বিকাশ” ঘটানোর সহায়ক। খেলা সম্প্রীতির বন্ধন, খেলাধুলা শরীর ও মনকে ভাল রাখে। শরীর সুস্থ্য রাখার জন্য প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০মি. ব্যায়াম/খেলাধুলা করতে হবে। বয়ষ্কদের খেলা-ধুলার সুয়োগ না থাকলে সকালে/বিকালে কমপক্ষে ১৫-২০মি. দৌড়ান/ব্যায়াম করা উচিত। একটা দৌড় প্রতিযোগিতায় আপনি দ্বিতীয় রানারকে টপকে গেলেন। আপনি এখন এই দৌড়ে কত নম্বরে আছেন?
(A) ১ম স্থানে
(B) ২য় স্থানে
(C) ৩য় স্থানে