সকল সংবাদ মাধ্যমে আজকের গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ:

যে কারণে ইরানের সঙ্গে গোপন সম্পর্ক তৈরির চেষ্টা করছে সৌদি

শিরোনাম-1 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:15-Dec-2019
চির বৈরী ইরানের সঙ্গে গোপনে সম্পর্ক বাড়ানোর চেষ্টা করছে সৌদি আরব। অর্থনৈতিক সংকট থেকে বেঁচে থাকতে দেশটি এমন পদক্ষেপ নিয়েছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে।


শুক্রবার প্রকাশিত ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইরানের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক অবনতি হওয়া এবং উত্তেজনা বেড়ে চলার কারণে দেশের অর্থনীতি আরও খারাপ অবস্থায় পড়বে বলে সৌদি কর্মকর্তারা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ও অন্য মিত্ররা কতটা পৃষ্ঠপোষকতা দেবে তা নিয়ে সৌদি কর্মকর্তারা উদ্বিগ্ন। এ অবস্থায় তারা ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের পথ বেছে নেয়াকে ভালো মনে করছেন।

গত সেপ্টেম্বর মাসে সৌদি আরবের সর্ববৃহৎ তেল স্থাপনা আরামকোর ওপর ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের হামলার পর থেকে সৌদি সরকার ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের চিন্তা করছে।...বিস্তারিত >>

বোরকার প্রতি ক্ষোভ দেখানোয় সিনেটরকে তিরস্কার!

শিরোনাম-2 (সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন) তারিখ:15-Dec-2019
বোরকার প্রতি চরম ক্ষোভ ও অবমাননা দেখায় অস্ট্রেলিয়ান সিনেটর ও রাজনীতিক পৌলাইন হানসোন।দেশটিতে বোরকাকে নিষিদ্ধ করার জন্য সংসদে বোরকা পরে বক্তব্য শুরু করে হানসোন।

এরপর অবমাননাকর ভঙ্গিতে টেনে-হিঁচড়ে নিজের পরিহিত বোরকা খুলে ফেলে। বোরকা পরা ও খোলার এ দৃশ্য চরম ইসলাম বিদ্বেষের বহিঃপ্রকাশ।

৬৫ বছর বয়সী পৌলাইন হানসোন রাইটউইং ওয়ান ন্যাশন পার্টির প্রতিষ্ঠা। তার এ ইসলাম বিদ্বেষী আচরণে কোয়ালিশন ও লেবার পার্টির সিনেটররা তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে ইসলাম ও মুসলিমদের প্রতি বিদ্বেষ পোষণের অভিযোগও তুলেছেন তারা।
বোরকা পরে ইসলাম ও মুসলিমদের কটাক্ষ করতে সিনেট কক্ষে প্রবেশ করায় তাকে টার্নবুল সরকারও তিরস্কার করেছেন।...বিস্তারিত >>

উত্তাল ভারত, ট্রেনে আগুন-ভাঙচুর

শিরোনাম-3 (সূত্র: ইত্তেফাক) তারিখ:15-Dec-2019
নাগরিকত্ব বিলের (সিএবি) প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে ভারত। বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। ট্রেনে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ অর্ধশতাধিক বিক্ষোভকারীকে আটক করেছে।


ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, শনিবার সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার লালগোলা রেল স্টেশনে পাঁচটি ট্রেনে আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। হাওড়া রেলস্টেশন ও এর আশেপাশে কয়েকশো মানুষ রাস্তা অবরোধ করে রেল স্টেশন আগুন ধরিয়ে দেয়।

বিবিসির খবরে বলা হয়, শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ আর হাওড়াতে বিক্ষোভের সময়ে বেশ কয়েকটি ট্রেন আর দুটি রেল স্টেশনে ভাঙচুর করা হয়। জ্বালিয়ে দেওয়া হয় বাস। উলুবেড়িয়া স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকটি ট্রেনে হামলা করায় হয়। তারপরে দুটি স্টেশনের সামনেই আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। বন্ধ হয়ে যায় ট্রেন চলাচল। ফলে হাওড়া থেকে খড়গপুর ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।...বিস্তারিত >>

বায়ু দূষণের শীর্ষ তালিকায় ঢাকা

শিরোনাম-4 (সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন) তারিখ:15-Dec-2019
এয়ার ভিজ্যুয়াল ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী আজ বরিবার সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে বিশ্বের সব দূষিত শহরকে পেছনে ফেলে শীর্ষে চলে আসে রাজধানী ঢাকা। ঢাকায় এসময় বায়ু দূষণের পরিমাণ ছিল ২৩৭ পিএম। প্রতি মুহূর্তেই বায়ু দূষণের মাত্রার বিষয়টি আপডেট করা হয় ২০১৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এ প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে। তাদের বিশ্বাস, বায়ু দূষণের তথ্য প্রকাশ করলে তা এ দূষণের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে ২৩৬ পিএম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ছিল মঙ্গোলিয়ার উলানবাটোর। ১৯৭ পিএম নিয়ে আফগানিস্তানের কাবুল তৃতীয়, ১৯১ পিএম নিয়ে পাকিস্তানের লাহোর চতুর্থ, ১৮৩ পিএম নিয়ে চীনের চেংদু পঞ্চম এবং ১৮২ পিএম নিয়ে ষষ্ঠ ছিল ভারতের দিল্লি।

ঢাকাকে প্রথমস্থান বেশিক্ষণ ধরে রাখতে দেয়নি উলানবাটোর। ২৪০ পিএম দূষণ নিয়ে ৮টা ৫০ মিনিটে শীর্ষ দূষণের শহরে চলে আসে উলানবাটোর আর ঢাকা হয়ে যায় দ্বিতীয়। যদিও সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দ্বিতীয় স্থানেই ছিল ঢাকা।
সকাল ১১ টা ১১ মিনিটের সময় এ তালিকায় শীর্ষে জায়গা নিয়েছে কাবুল। এর পরের অবস্থানে আছে যথাক্রমে ঢাকা, লাহোর, দিল্লি ও উলানবাটোর। ...বিস্তারিত >>

আতঙ্কের নাম ভুয়া ওয়ারেন্ট

শিরোনাম-5 (সূত্র: ইত্তেফাক) তারিখ:15-Dec-2019
সারাদেশে ভুয়া গ্রেফতারি পরোয়ানা নিয়ে ভয়ঙ্কর ফাঁদ পেতেছে শক্তিশালী একটি প্রতারক চক্র। আর এ ফাঁদে পড়ে হয়রানির শিকার হচ্ছে সাধারণ মানুষ। ফাঁদে আটকে পড়া অনেককেই পুলিশি গ্রেফতারির শিকার হতে হচ্ছে। অনেককে কারাগারে বন্দীজীবন কাটাতে হচ্ছে।


জানা গেছে, একটি চক্র প্রতিপক্ষকে হয়রানি করতে এ ধরনের ভুয়া গ্রেফতারি পরোয়ানা ডাকযোগে পাঠিয়ে দেয় সংশ্লিষ্ট মেট্রোপলিটন পুলিশ অথবা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে। এরপর ঐ গ্রেফতারি পরোয়ানা যাচাই-বাছাই না করেই পাঠিয়ে দেওয়া হয় সংশ্লিষ্ট থানায়। থানার কাছে ঐ গ্রেফতারি পরোয়ানা পৌঁছার পর আদালতের নির্দেশ অনুযায়ি পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করতে যায়। ঐ আসামি মামলা দায়ের ও গ্রেফতারি পরোয়ানার ব্যাপারে আগাম কোন তথ্য জানেন না। এক পর্যায়ে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়। কারাবন্দী হওয়ার পর ওই ব্যক্তির নামে বিভিন্ন থানা ও আদালতে দায়ের হয় একাধিক মামলা। পূর্বে ভুয়া ওয়ারেন্টে গ্রেফতার হলেও পরবর্তীতে দায়ের করা মামলায় ওই ব্যক্তিকে মাসের পর মাস আবার বছরের পর বছর কারাগারের অন্ধপ্রকোষ্ঠে বন্দী জীবন কাটাতে হয়।...বিস্তারিত >>

থ্যালাসের তৈরি রাডার বসছে শাহজালালে

শিরোনাম-6 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:15-Dec-2019
অবশেষে ফ্রান্সের থ্যালাসের তৈরি রাডার বসছে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। রাডার কেনা নিয়ে বারবার বিতর্ক তৈরি হওয়ায় এবার সরাসরি জিটুজি পদ্ধতিতে কেনা হচ্ছে। এতে সরকারের খরচ হতে পারে সর্বোচ্চ ৬৫০ কোটি টাকা। ৬ মাসের মধ্যে এই ক্রয়প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার সম্ভাবনা আছে বলে সিভিল এভিয়েশন সূত্রে জানা গেছে।


নিরাপদ বিমান চলাচল নিশ্চিত করতে বিশ্বব্যাপী রাডারের বিকল্প নেই। এ নিয়ে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল সংস্থার আইকাও’র বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ সফলভাবে প্রস্তুত করার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের জন্য রাডার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে ফ্রান্সের বিশ্বখ্যাত থ্যালাসের মাধ্যমে।

বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী বলেন, আগের চেয়ে বর্তমান প্রকল্পের মাধ্যমে রাডার সংগ্রহ করা হলে কমপক্ষে দেড় হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় হবে।

সিভিল এভিয়েশন চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান জানিয়েছেন, যে প্রক্রিয়ায় সরকার এগোচ্ছে তাতে আগামী ছয় মাসের মধ্যে কার্যাদেশ দেয়া সম্ভব হবে। তারপরই রাডার স্থাপন শুরু হবে। কাজ শেষ করতে লাগবে কমপক্ষে দুই বছর।...বিস্তারিত >>

হয়রানি বন্ধে প্রাথমিকে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে শিক্ষক বদলি

শিরোনাম-7 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:15-Dec-2019
ঘুষ-দুর্নীতির অভিযোগ ও হয়রানি বন্ধে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বদলি কার্যক্রম স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এজন্য অনলাইনে বদলি আবেদন নেয়া হবে। সফটওয়্যারের মাধ্যমে শতভাগ দুর্নীতিমুক্ত বদলি কার্যক্রম পরিচালনার উদ্যোগ নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ লক্ষ্যে সফটওয়্যারের পাশাপাশি নীতিমালা তৈরির কাজ চলছে। তবে নতুন পদ্ধতি চালুর আগে পুরনো নীতিমালার অধীনেই শিক্ষক বদলি করা হবে।

জানা গেছে, শিক্ষক বদলি নীতিমালা ও সফটওয়্যার তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বদরুল হাসান বাদলের নেতৃত্বে চার সদস্যের কমিটি নীতিমালা তৈরির কাজ করছে এবং সফটওয়্যার তৈরির দেখভাল করছে। অতিরিক্ত সচিব বদরুল হাসান যুগান্তরকে জানান, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ভোগান্তিমুক্ত সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে এ কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, সফটওয়্যার তৈরিতে বুয়েটের সহায়তা নেয়া হচ্ছে। এটি তৈরির পর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হবে।

পরিপূর্ণভাবে প্রয়োগের উপযোগী হলে ২০২০ সালের যে কোনো সময় নতুন নীতিমালার আলোকে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে বদলি কার্যক্রম শুরু হবে।...বিস্তারিত >>

চট্টগ্রামে চেয়ারম্যানের বাড়িতে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গোলাবারুদ

শিরোনাম-8 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:15-Dec-2019
চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলায় এক চেয়ারম্যানের বাড়ি থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি এবং বিপুল পরিমাণ অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।


শনিবার দুপুরে উপজেলার সারোয়াতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বেলালের হোরারবাগস্থ গ্রামের বাড়ি থেকে এসব অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করে র‌্যাব চট্টগ্রাম জোনের একটি দল।

তবে অভিযানের সময় চেয়ারম্যান এবং তার পরিবারের কাউকে পাওয়া যায়নি বলে জানায় র‌্যাব।

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দুপুর ১২টা থেকে বিকাল পর্যন্ত সীমানা দেয়াল দিয়ে ঘেরা চেয়ারম্যান বেলাল হোসেনের বাড়ির ভেতরে বাঁশের তৈরি একটি ঘরে অভিযান চালিয়ে একটি ওয়ান শুটারগান ও দুটি বুলেট এবং পিস্তল ও বন্দুক তৈরির মেশিনসহ বেশ কিছু সরঞ্জাম উদ্ধার হয়েছে।

তবে অভিযানের সময় চেয়ারম্যান ও তার পরিবারের কোনো সদস্যকে পাওয়া না গেলেও তারা এর সঙ্গে সম্পৃক্ত কিনা সেটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া র‌্যাবের চট্টগ্রাম জোনের সিনিয়র সহকারী পরিচালক এএসপি কাজী মো. তারেক আজিজ জানান, যদিও বাড়ির সীমানা দেয়ালের মধ্যে অস্ত্র ও গোলাবারুদ পাওয়া গেছে, তার পরও এই কারখানার সঙ্গে চেয়ারম্যানের সম্পৃক্ততা আছে কিনা সেটি আমরা নিশ্চিত নই।...বিস্তারিত >>

ফুঁসছে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৪ দেশের ভ্রমণ সতর্কতা

শিরোনাম-9 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:15-Dec-2019
ভারতের ইসলামবিদ্বেষী নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে গত কয়েক দিনের বিক্ষোভের জের ধরে শনিবারও উত্তাল ছিল উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলো। এতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন কেন্দ্র করে সৃষ্ট অস্থিরতায় ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোতে ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও ফ্রান্স।


সহিংসতায় ইতিমধ্যে কয়েকজন ভারতীয় নিহত হয়েছেন বলে খবরে বলা হয়েছে।

সুদূর, বিচ্ছিন্ন ও সমৃদ্ধ এই রাজ্যগুলোর বাসিন্দাদের আশঙ্কা– নতুন প্রণীত আইনে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া বড়সংখ্যক একটা অভিবাসী নাগরিকত্ব পাওয়ার সুযোগ পাবেন। তারা তাদের চাকরিতে ভাগ বসানো ও সাংস্কৃতিক পরিচয়কে নিষ্প্রভ করে দেবেন।

আইনটি বাতিলের জন্য ভারতের হিন্দুত্ববাদী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আহ্বান জানতে শনিবারও কয়েক হাজার ভারতীয় রাজধানী নয়াদিল্লিতে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে রাস্তায় নেমে আসেন। তখন কারও কারও হাতে ‘ভারতে বিভাজন বন্ধ কর’ লেখা প্ল্যাকার্ডও দেখা গেছে।...বিস্তারিত >>

সাংবাদিকদের খাবারে বিষক্রিয়া নিয়ে যা বললেন বিসিবি সভাপতি

শিরোনাম-10 (সূত্র: কালের কন্ঠ) তারিখ:14-Dec-2019
এবারের বিপিএলের শুরু থেকেই জন্ম নিয়েছে একের পর এক সমালোচনা। তবে সব যেন ছাপিয়ে গেছে পেশাগত দায়িত্বরত সাংবাদিকদের জন্য বিসিবি থেকে সরবরাহকৃত খাবারের বিষক্রিয়া। গত তিন দিনে অন্তত ২৫ জন সাংবাদিক এই বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে পেটের পীড়ায় ভূগছেন। গতকাল 'হার্ট অ্যাটাকে' প্রয়াত তরুণ সাংবাদিক দীপায়ন অর্ণবও এই খাবার খেয়ে পেটের পীড়ায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা এতটাই প্রকট হয়ে উঠেছে যে, আজ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে সাংবাদিকদের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিকভাবে কথা বলতে হয়েছে।

প্রেসবক্সে সাংবাদিকদের জন্য খাবার সরবরাহ করেছে 'সেভেনহিল' নামের একটি রেস্টুরেন্ট। তাদের সরবরাহকৃত খাবার খেয়ে গত তিনদিনে একের পর এক সাংবাদিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। শুধু সাংবাদিকরাই নন, অসুস্থ হয়েছেন বিসিবির মিডিয়া বিভাগের কর্মীরাও। এ নিয়ে পাপন অনেকটা দায় সাংবাদিকদের ওপরেই চাপালেন, 'প্যাকেটে যদি অনেকক্ষণ খাবার থাকে তখন সমস্যা হয়। এটা ওরা ১২ টার মধ্যে পৌঁছে দেয়। কেউ যদি ৩-৪ টার দিকে খেতে যায় এখানে সমস্যা হতেই পারে। তাৎক্ষণিকভাবে ওই জায়গাটা (সেভেন হিল রেস্টুরেন্ট) বদল করতে বলা হয়েছে।'...বিস্তারিত >>

কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী আবদুল্লাহ আরও তিন মাসের গৃহবন্দি

শিরোনাম-11 (সূত্র: প্রথম আলো) তারিখ:14-Dec-2019
ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্স প্রধান ফারুক আবদুল্লাহর আটকের মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়িয়েছে দেশটির হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার।

কেন্দ্রীয় সরকারের এ সিদ্ধান্তের ফলে শ্রীনগরের নিজ বাড়িতে তাকে আরও তিন মাস গৃহবন্দি থাকতে হবে। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের পর থেকে তার বাড়িটিকে সাব-জেল ঘোষণা করে ভারত সরকার।

এনডিটিভি জানিয়েছে, কাশ্মীরের জননিরাপত্তা আইনের অধীনে যে কোনো ব্যক্তিকে বিনাবিচারে দুই বছর পর্যন্ত আটক রাখা যায়।

সাধারণত সন্ত্রাসী, বিচ্ছিন্নতাবাদী ও নিরাপত্তা বাহিনীর দিকে পাথর নিক্ষেপকারীদের গ্রেপ্তারের পর তাদের আটক রাখতে এই আইনটি ব্যবহার করা হয়।

এই প্রথম ভারতের শীর্ষ একজন রাজনীতিবিদের বিরুদ্ধে, যিনি একাধারে লোকসভার সদস্য ও একটি রাজ্যের তিন মেয়াদের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী, এ আইনটি ব্যবহার করা হল।

চলতি মাসের প্রথমদিকে এক চিঠিতে ফারুক আবদুল্লাহ তাকে পার্লামেন্টের শীতকালীন অধিবেশনে যোগ দিতে না দেয়ায় মোদির সরকারের সমলোচনা করেন।...বিস্তারিত >>

গাম্বিয়ার মামলার সিদ্ধান্ত শিগগিরই

শিরোনাম-12 (সূত্র: সময় টিভি) তারিখ:14-Dec-2019
সময় সংবাদ


আপডেট
১৩-১২-২০১৯, ১৩:১৭
গাম্বিয়ার মামলার সিদ্ধান্ত শিগগিরই
গ-ম-ব-য়-র-ম-মল-র-স-দ-ধ-ন-ত-শ-গগ-র
আরও পড়ুন
চার নয়, দুই বছরেই ইতালির নাগরিকত্ব
বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের বিরল অর্জন জার্মানিতে
কাতারে প্রবাসী শ্রমিকদের স্বল্পমূল্যে খাবার দিচ্ছে বাংলাদেশি রেস্তোরাঁগুলো
রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার করা মামলার শুনানি ও যুক্তিতর্ক শেষে যত শিগগিরই সম্ভব আদালত তার সিদ্ধান্ত উভয়পক্ষকে জানিয়ে দেবে বলে জানিয়েছেন আদালতের প্রেসিডেন্ট।


শেষ দিনের শুনানিতে মামলা খারিজ করে দেয়ার আহ্বান জানান মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি।

অন্যদিকে, আদালতের কাছে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অন্তর্বর্তী ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন জানিয়েছে গাম্বিয়া।

বৃহস্পতিবার নেদারল্যান্ডসের হেগে আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে শুনানির শেষ দিন যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করে গাম্বিয়া ও মিয়ানমার। শুনানির শেষ পর্যায়ে নিজেদের পক্ষে বক্তব্য তুলে ধরার নামে আবারও সাফাই গান মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি। বলেন, রোহিঙ্গাদের গোষ্ঠীগতভাবে ধ্বংস করার চেষ্টা করা হয়নি।

ব্রিটেন ও যুক্তরাষ্ট্রের মতো মিয়ানমারেও সামরিক অপরাধের বিচার সামরিক বিচার ব্যবস্থায় হয়ে থাকে উল্লেখ কোরে তিনি বলেন, ঐ বিচারকে বাধাগ্রস্ত করা ঠিক হবে না।

অং সান সু চি বলেন, জাতিগত সংঘাত আবার শুরু হোক এমন কিছু আমরা চাই না। গাম্বিয়ার মামলাটি খারিজ করে দেওয়া হোক। এবং অন্তর্বর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার গাম্বিয়া যে আবেদন জানিয়েছে সেটিও খারিজ করে দেয়া হোক। সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার চেষ্টা কাজ করছি আমরা এবং সেটা অব্যাহত রাখতে চাই। আদালতের কাছে আমরা সেই সুযোগ চাই।

এর আগে, আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে রোহিঙ্গাদের জাতিগত নিধনের তথ্য-প্রমাণ তুলে ধরে গাম্বিয়া। দেশেটির আইনজীবী বলেন, অং সান সু চি আগের দিন যে ভাষায় কথা বলেছেন সেটি সম্পূর্ণ অযৌক্তিক।

তিনি বলেন, মিয়ানমার গতকাল যা বলেছে, এসব কথা তারা আগে থেকেই বলে আসছে। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে যে গণহত্যার অভিযোগ রয়েছে, তার সপক্ষে শক্ত কোনো যুক্তি তুলে ধরতে ব্যর্থ হয়েছে দেশটি। সু চি সেই গথবাধা কথাই বলে গেছেন।

মিয়ানমার যে ভাষায় কথা বলেছে তা কাম্য নয়। তারা রোহিঙ্গাদের বাঙালি আখ্যা দিয়ে নিধনযজ্ঞ চালিয়েছে। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ঢালাওভাবে অপপ্রচার ছড়িয়েছে। তারা রোহিঙ্গাদের গণহত্যা যেমন অস্বীকার করেছে তেমনি ধর্ষণ নিয়েও একটি শব্দ পর্যন্ত বলেনি।

সমস্যার সমাধানে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জোর দেন তিনি।

গাম্বিয়ার আইনজীবী বলেন, মিয়ানমার বাংলাদেশের সঙ্গে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের চুক্তি করেছে। কিন্তু তারা চুক্তি বাস্তাবায়নের নামে প্রতারণা করে যাচ্ছে। তারা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিচ্ছে না। এ নিয়ে কোনো পদক্ষেপ নেই তাদের। তারা চাইলেই রাখাইনের পরিস্থিতির উন্নতি করতে পারে, তাদের সেই সক্ষমতা আছে কিন্তু নেই স্বদিচ্ছা। তাই রাখাইনের দৃশ্যমান কোনো উন্নতিও হচ্ছে না।...বিস্তারিত >>

লড়াইয়ের আহ্বান সোনিয়ার, আন্তর্জাতিক চাপে ভারত

শিরোনাম-13 (সূত্র: সময় টিভি) তারিখ:14-Dec-2019
বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানালেন কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধী। নয়াদিল্লির রামলীলা ময়দানে ভারত বাঁচাও সমাবেশে নাগরিকত্ব আইনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে মোদি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা।


এদিকে, নতুন নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে ভারতের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ অব্যাহত আছে। চলমান এ বিক্ষোভের কারণে দেশটিতে নিজেদের নাগরিকদের জন্য ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানাডা।

ভারতে নতুন নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে শুক্রবার বিকেলে নয়াদিল্লিতে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। মিছিল নিয়ে তারা পার্লামেন্টের দিকে যাওয়ার সময়, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হন। আটক করা হয় অন্তত ৫০ জনকে।...বিস্তারিত >>

গোপনে ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরির চেষ্টা করছে সৌদি

শিরোনাম-14 (সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন) তারিখ:14-Dec-2019
আমেরিকার প্রভাবশালী গণমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, সৌদি আরব গোপনে ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা করছে। সৌদি আরব যখন অর্থনৈতিক সংকটে ভুগছে এবং আমেরিকা কতটা রিয়াদকে সমর্থন দেবে তা নিয়ে সন্দেহ দানা বাধছে তখন এ তথ্য দিল এ গণমাধ্যমটি।

শুক্রবার প্রকাশিত ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি কর্মকর্তারা এই ভেবে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন যে, ইরানের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক অবনতি হওয়া এবং উত্তেজনা বেড়ে চলার কারণে দেশের অর্থনীতি আরও খারাপ অবস্থায় পড়বে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আমেরিকা ও অন্য মিত্ররা কতটা পৃষ্ঠপোষকতা দেবে তা নিয়ে সৌদি কর্মকর্তারা উদ্বিগ্ন। এ অবস্থায় তারা ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের পথ বেছে নেয়াকে ভালো মনে করছেন।
গত সেপ্টেম্বর মাসে সৌদি আরবের সর্ববৃহৎ তেল স্থাপনা আরামকোর ওপর ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন সমর্থিত সেনাবাহিনীর হামলার পর থেকে সৌদি সরকার ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের চিন্তা করছে।...বিস্তারিত >>

২০৩৫ সালে জনসংখ্যায় শীর্ষ ১০ শহরে থাকবে ঢাকা

শিরোনাম-15 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:14-Dec-2019
২০৩৫ সাল নাগাদ বিশ্বের অনেক শহরের চেহারা বদলে যাবে। ওই সময়ে অর্থনীতির আকার, জনসংখ্যা ও জিডিপির প্রবৃদ্ধির হারের পূর্বাভাসের ওপর ভিত্তি করে অক্সফোর্ড ইকোনমিকস শীর্ষ ১০টি শহরের তালিকা করেছে। এতে জনসংখ্যার ভিত্তিতে করা তালিকায় স্থান পেয়েছে ঢাকা।


অক্সফোর্ড ইকোনমিকসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০৩৫ সাল নাগাদ মোট জিডিপি বিস্তৃত হওয়া শহরগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, লস অ্যাঞ্জেলেস ও শিকাগো রয়েছে। তালিকায় চীনের শহর সাংহাই, বেইজিং, গুয়াংজু ও শেনঝেন থাকবে।

শক্তিশালী ব্যাংকিং ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রের জন্য ২০৩৫ সালে নিউইয়র্ক শহরের জিডিপি দাঁড়াবে ২ দশমিক ৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। ১ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের জিডিপি নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে থাকবে টোকিও।...বিস্তারিত >>

সংগ্রাম সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা

শিরোনাম-16 (সূত্র: প্রথম আলো) তারিখ:14-Dec-2019
দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার সম্পাদক আবুল আসাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় আজ এই মামলা করা হয়েছে।

পুলিশ এই মামলায় আবুল আসাদকে রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ কমিশনার (ডিসি) বিপ্লব বিজয় তালুকদার প্রথম আলোকে এ কথা জানিয়েছেন।

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর হওয়া জামায়াত নেতা আবদুল কাদের মোল্লাকে ‘শহীদ’ উল্লেখ করে প্রতিবেদন প্রকাশ করায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একদল নেতা-কর্মী শুক্রবার সন্ধ্যায় সংগ্রাম কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেন। এ সময় একদল যুবক পত্রিকাটির কার্যালয়ে ঢুকে বিভিন্ন কক্ষ ভাঙচুর করেন। ওই সময় যুবকেরা সম্পাদক আবুল আসাদের কক্ষে গিয়ে তাঁকে নাজেহাল করে বারবার ক্ষমা চাওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন। পরে পুলিশ গিয়ে সম্পাদককে হাতিরঝিল থানায় নিয়ে যায়...বিস্তারিত >>

ডেসটিনি, যুবক, ইউনিপে, হলমার্কের পর কি ইভ্যালী?

শিরোনাম-17 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:13-Dec-2019
বাংলাদেশের মানুষকে প্রলোভন দেখিয়ে হাজার কোটি টাকা নিয়ে বন্ধ হয়ে গেছে ডেসটিনি-২০০০ লিমিটেড, যুব কর্মসংস্থান সোসাইটি (যুবক), ইউনিপে টু ইউ (বিডি) লিমিটেড, হলমার্ক গ্রুপ, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেডসহ অসংখ্য প্রতিষ্ঠান। সে তালিকায় কি যুক্ত হতে যাচ্ছে ই-কমার্স ভিত্তিক মার্কেটপ্লেস ইভ্যালী?


সম্প্রতি তথ্যপ্রযুক্তি খাত সংশ্লিষ্ট অনেকেই এই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এই নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলছে। ই-কমার্স নিয়ে দেশে কোনো রেগুলেটরি কমিশন না থাকার কারণে বিষয়টি নিয়ে সরকারের উচ্চ মহলে নজরে আসছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

তবে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে ইভ্যালীর বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড় জমা হয়েছে। আর সরকারের একটি গোয়েন্দা সংস্থা এই নিয়ে খোঁজ খবর রাখছে। যুগান্তর পরবর্তী প্রতিবেদনে এ বিষয়ে বিস্তারিত সংবাদ প্রকাশ করবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশে একমাত্র ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ইভ্যালীতে ক্যাশ অন ডেলিভারি (সিওডি) বা পণ্য হাতে পাওয়ার পর পেমেন্ট পদ্ধতি নেই। ফলে এখানে পণ্য ক্রয় করতে হলে অবশ্যই আগে থেকে অনলাইনে পেমেন্ট দিতে হবে। পেমেন্ট দেয়ার কয়েকমাস পর পণ্য পাওয়া যায়।

মূলত বাজার মূল্যের চেয়ে কম টাকা বা ডিসকাউন্টে পণ্য দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে অফার দেয়া হয় বলেই মানুষ এখানে ঝাঁপিয়ে পড়ে। কিন্তু অভিযোগ রয়েছে ইভ্যালীতে কখনই নির্ধারিত সময়ে পণ্য ডেলিভারি দেয়া হয় না। এমনকি তিন চার মাস অপেক্ষায় রেখে গ্রাহককে বলা হয় স্টক আউট হওয়ার কারণে পণ্য দেয়া যাচ্ছে না।

আর যাদের পণ্য ডেলিভারি দেয়া হয় না তাদের সরাসরি টাকা ফেরত দেয়া হয় না। ইভ্যালীর ওয়েবসাইটে গ্রাহকের করা একাউন্টে এই টাকা থাকবে এবং পরবর্তীতে পণ্য কিনলে সেখানে অ্যাডজাস্ট করা হবে।

চোর গেলে বুদ্ধি বাড়ে। দেশে হায়হায় কোম্পানিগুলো টাকা মেরে বন্ধ হয়ে গেলে সেগুলো নিয়ে টেলিভিশনে টকশো হয়, মানববন্ধন হয়। কিন্তু এসব করার আগে উদ্যোগ নিলে লাখ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয় না। দুদক এ ব্যাপারে এখনই উদ্যোগ নিতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।...বিস্তারিত >>

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে ভারতকে কড়া বার্তা যুক্তরাষ্ট্রের

শিরোনাম-18 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:13-Dec-2019
নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে ভারতকে কড়া বার্তা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার দেশটির পররাষ্ট্র দফতর থেকে এ বার্তা দেয়া হয়।


পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ঘিরে কী কী ঘটছে, সেদিকে নজর রেখেছি আমরা। ধর্মীয় স্বাধীনতা এবং সবার সমানাধিকারই আমাদের দুই গণতন্ত্রের মৌলিক নীতি। ভারতের কাছে মার্কিন সরকারের আর্জি, সংবিধান এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের কথা মাথায় রেখে তারা যেন দেশের ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার রক্ষা করে।

প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা অমুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের ভারতের নাগরিকত্ব দিতে গত সোমবার লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) পাস করা হয়। পরে বুধবার রাজ্যসভাতেও তা পাস হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে তাতে সই করেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

কলকাতার প্রভাবশালী গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুরু থেকেই এই বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে মার্কিন কংগ্রেসের একটি অংশ।

জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) পর দেশের সংখ্যালঘুকে নিশানা করতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে মোদি সরকার নাগরিক সংশোধনী বিল এনেছে বলে দাবি তাদের। তা নিয়ে সপ্তাহের শুরুতেই নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহদের বিরুদ্ধে সরব হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত কমিশন (ইউএসসিআইআরএফ)।...বিস্তারিত >>

স্ত্রীকে পিয়াজের দুল উপহার দিলেন অক্ষয় কুমার

শিরোনাম-19 (সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন) তারিখ:13-Dec-2019
বাংলাদেশের মতো ভারতেও পিয়াজের দাম অস্থিতিশীল পর্যায়ে পৌঁছেছে। পিয়াজের এ উত্তাপ ভারতের সাধারণ মানুষকে ছাপিয়ে বলিউডেও পৌঁছেছে। পিয়াজ নিয়ে এমন উত্তাপের মাঝে স্ত্রী টুইঙ্কেল খান্নাকে পিয়াজের দুল উপহার দিয়েছেন বলিউড সুপারস্টার অক্ষয় কুমার।

বলিউডের 'খিলাড়ি' খ্যাত অক্ষয় এখন ভীষণ ব্যস্ত 'গুড নিউজ' ছবির প্রমোশন নিয়ে। তার ফাঁকেই স্ত্রী টুইঙ্কেল খান্নার হাতে তিনি তুলে দিয়েছেন প্রকৃতই এক মহার্ঘ্য উপহার। পিয়াজের দুল!

বলিউড তারকা ও লেখক টুইঙ্কেল খান্না বৃহস্পতিবার রাতে তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পিয়াজের সেই এক জোড়া কানের দুলের ছবি পোস্ট করেছেন। ভালো করে তাকিয়ে দেখলে বোঝা যাবে, সেই দুল জোড়ার নিচে ঝুলছে ‘মহামূল্যবান’ পিয়াজ।...বিস্তারিত >>

কনজারভেটিভ পার্টির বড় জয়

শিরোনাম-20 (সূত্র: সমকাল) তারিখ:13-Dec-2019
যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে বড় জয় দিয়ে আবারও ক্ষমতায় এলো বরিস জনসনের দল কনজারভেটিভ পার্টি।

সরকার গঠন করার জন্য ৩২৬টি আসনের প্রয়োজন হলেও ক্ষমতাসীন এই দল তার চেয়ে অনেক বেশি আসন পেয়েছে বলে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবার পর বরিস জনসন বলেছেন, আগামী মাসে ব্রিটেনকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের করে আনার ম্যান্ডেট দেবে এই জয়। আর হেরেই দলের নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন।

কনজারভেটিভ পার্টি যে লেবার পার্টিকে হারিয়ে আবারও ক্ষমতায় আসছে তা অবশ্য অনেকটাই নিশ্চিতভাবে জানা যাচ্ছিল আগে থেকেই; বুথ ফেরত জরিপেও দলটির বড় জয়ের আভাস পাওয়া যায়।

বরিস জনসনের দল কনজারভেটিভ পার্টির জয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই জয়কে তিনি 'জনসনের বড় জয়' হিসেবেই দেখছেন।

বৃহস্পতিবার দেশটির সাধারণ নির্বাচনের পর রাত ১০টার দিকে ভোট গণনা শুরু হয়। স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ঘোষিত ৬৪৫টি আসনের মধ্যে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি ৩৬২টি আসনে জয় পেয়েছে আর প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টি পেয়েছে ২০৩টি আসন।...বিস্তারিত >>

রাজশাহীর বিপক্ষে মাত্র ৯১ রানে অলআউট সিলেট

শিরোনাম-21 (সূত্র: ইত্তেফাক) তারিখ:13-Dec-2019
বঙ্গবন্ধু বিপিএলের পঞ্চম ম্যাচে রাজশাহী রয়্যালের বিপক্ষে আগে ব্যাট করে মাত্র ৯১ রানে অলআউট হয়েছে সিলেট থান্ডার্স। দলের হয়ে মোহম্মদ মিঠুন ও মোসাদ্দেক হোসেন সর্বোচ্চ ২০ রান করেন। রাজশাহীর হয়ে অলোক কাপালি ৩ উইকেট নেন।


টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে সিলেটের দুই ওপেনার রনি তালুকদার ও জনসন চার্লস ৪ ওভারে ৩৬ রান তুলেছিলেন। এরপর দ্রুত ৩ উইকেট হারায় তারা। আন্দ্রে রাসেল দারুণ স্লোয়ারে এলবিডব্লিউ করেন রনি তালুকদারকে (১৯)।

পরের ওভারে অলোক কাপালি পরপর দুই বলে বোল্ড করেন চার্লস (১৬) ও জীবন মেন্ডিসকে (০)। সেখান থেকে চতুর্থ উইকেটে ৩১ রানের জুটি গড়েন মিথুন ও মোসাদ্দেক। মিথুন দুই চার মেরে ভালো শুরু করলেও নিজের ইনিংস বড় করতে পারেননি। মিথুন আউট হন ২০ রানে। ...বিস্তারিত >>

ফোর্বসের প্রভাবশালী ১০০ নারীর তালিকায় শেখ হাসিনা

শিরোনাম-22 (সূত্র: ইত্তেফাক) তারিখ:13-Dec-2019
মার্কিন ম্যাগাজিন ফোর্বস এ বছরের বিশ্বের প্রভাবশালী ১শ নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে। তালিকায় ২৯তম অবস্থানে রয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। তালিকায় যথারীতি প্রথম অবস্থানে রয়েছেন জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল। এ নিয়ে টানা ৯ বারের মতো তিনি তালিকার শীর্ষে থাকলেন।


ফোর্বসের তালিকায় অ্যাঙ্গেলা মেরকেল ছাড়া শীর্ষ ১০ নারীর তালিকায় আছেন ক্রিস্টিনে লেগারদে, নেন্সি পেলোসি, আরসুলা ভন দের লেয়েন, মেরি বারা, মেলিন্ডা গেটস, আবিগেইল জনসন, আনা পেট্রিসিয়া বোটিন, গিনি রোমেটি এবং মেরিলিন হিউসন। ২০১৮ সালে ফোর্বসের প্রভাবশালী ১শ নারীর তালিকায় শেখ হাসিনার অবস্থান ছিল ২৬তম।

বাংলাদেশের ইতিহাসে দীর্ঘকালীন সময় ধরে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা। তিনি চতুর্থবারের মতো জয়ী হয়ে টানা তিনবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গত নির্বাচনে তার দল ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সংসদের ৩শ আসনের মধ্যে ২৮৮টিতেই জয় লাভ করে।...বিস্তারিত >>

‘ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ ভাবমূর্তি আর রক্ষা হচ্ছে না’

শিরোনাম-23 (সূত্র: কালের কন্ঠ) তারিখ:11-Dec-2019
ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল এবং দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ’র বক্তব্যের নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশের বিরোধীদল বিএনপি।

এই সংশোধনীকে আরও সাম্প্রদায়িক আখ্যা দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেছেন, ‘ভারতের যে চরিত্র একটা অসাম্প্রদায়িক বা একটা সেক্যুলার (ধর্মনিরপেক্ষ)- সেই ভাবমূর্তি আর রক্ষা হচ্ছে না।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আরো মনে করছেন, অমিত শাহ এর বক্তব্যে সাম্প্রদায়িকতা এবং ঘৃণা ছড়াবে।

ভারতের মন্ত্রী অমিত শাহ তার বক্তব্যে বলেছেন, প্রতিবেশী বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন না থামার কারণে তারা নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি এনেছেন।

এমন বক্তব্যের ক্ষেত্রে তিনি সরাসরি বাংলাদেশের বিরোধীদল বিএনপি এবং জামায়াতের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ তুলেছেন যে, এই দু'টি দলের আমলে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন অনেক বেশি হয়েছে।...বিস্তারিত >>

সু চি : গণতন্ত্রের আইকন থেকে গণহত্যার আসামি

শিরোনাম-24 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:11-Dec-2019
অং সান সু চি। এক সময় তাকে মানবাধিকার রক্ষার দূত হিসেবে ভাবা হতো। গণতন্ত্র ও মানবাধিকার রক্ষায় মিয়ানমারের সামরিক শাসকের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে গৃহবন্দি জীবন কাটিয়েছেন বছরের পর বছর।


গণতন্ত্র ও মানবাধিকার রক্ষায় বিশেষ অবদান রাখায় ১৯৯১ সালে সু চিকে শান্তিতে নোবেল পুরস্কারও দেয়া হয়। নোবেল পুরস্কার ঘোষণার দিন কমিটির চেয়ারম্যান তাকে ‘ক্ষমতাহীনের ক্ষমতা’ বলে আখ্যায়িত করেন।

কিন্তু ক্ষমতায় গিয়ে আপাদমস্তক পুরোটাই বদলে গেছেন তিনি। মানবতার পক্ষে তার সেই আগের অবস্থান আর নেই। রোহিঙ্গা গণহত্যায় মিয়ানমার সেনাবাহিনীর প্রতি নীরব সমর্থন দিয়ে বিশ্বজুড়ে ইতিমধ্যে নিন্দিত হয়েছেন এক সময়ের গণতন্ত্রের ‘আইকন’ সু চি। এবার সেই গণহত্যার অপরাধে আসামি হিসেবে আন্তর্জাতিক আদালতে হাজির তিনি।

৭৩ বছর বয়সী সু চি মিয়ানমারের সামরিক শাসনের অবসান ঘটিয়ে গণতন্ত্র রক্ষার আন্দোলন করায় ১৯৮৯ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে বেশিরভাগ সময় গৃহবন্দি ছিলেন। এর ফলে তিনি বিশ্বব্যাপী শান্তিপূর্ণ উপায়ে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার প্রতীক হয়ে দাঁড়ান। দীর্ঘ ২৫ বছর পর ২০১৫ সালে তার রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) থেকে নির্বাচন করে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেন।

তবে প্রকৃত বিজয় আসে আরও পাঁচ বছর পর যেদিন তিনি ১৫ বছরের গৃহবন্দিত্ব থেকে মুক্তি পান। ২০১৫ সালের নির্বাচনের মধ্যদিয়ে মিয়ানমার গণতন্ত্রের পথে হাঁটতে শুরু করলে দেশটির ক্ষমতার ভাগী হন সু চি।...বিস্তারিত >>

খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি কাল, উৎকণ্ঠায় বিএনপির নেতাকর্মীরা

শিরোনাম-25 (সূত্র: যুগান্তর) তারিখ:11-Dec-2019
জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন প্রশ্নে আপিল বিভাগের শুনানি আগামীকাল। জামিন হবে কিনা- তা নিয়ে বেশ উৎকণ্ঠায় আছেন দলটির নেতাকর্মীরা।


কি আদেশ দেন তা জানতে আদালতের দিকে তাকিয়ে আছেন তারা। বয়স এবং শারীরিক অসুস্থতা বিবেচনায় চেয়ারপারসন জামিন পাবেন বলে প্রত্যাশা দলটির।

এদিকে ৫ ডিসেম্বর আদালতে অপ্রীতিকর ঘটনায় বেশ সতর্ক বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। আগামীকাল শুনানির আগে বা শুনানিকালে এজলাস প্রাঙ্গণে যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে- সেদিকে সতর্ক থাকতে সবাইকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। জামিন শুনানিকে কেন্দ্র করে আগামীকাল আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত হবেন নেতাকর্মীরা। আদালতের ভেতরে এবং বাইরে ব্যাপক শোডাউন করা হবে। শুধু রাজধানীতে নয়, সারা দেশে নেতাকর্মীদের আগামীকাল যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।...বিস্তারিত >>

১৫ ডিসেম্বর আসছে ১০ ও ৫০ টাকার নতুন নোট

শিরোনাম-26 (সূত্র: ইত্তেফাক) তারিখ:11-Dec-2019
১০ টাকা ও ৫০ টাকা মূল্যমানের ব্যাংক নোট দুইটির রঙ প্রায় একই রকম হওয়ায় জনসাধারণের সুবিধার্থে লালচে কমলা রংয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি ও গভর্নর ফজলে কবিরের স্বাক্ষর সম্বলিত পঞ্চাশ টাকা মূল্যমান ব্যাংক নোট মুদ্রণ করা হয়েছে। চলতি বছরের ১৫ ডিসেম্বর হতে বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিস থেকে এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্যান্য অফিস থেকে ইস্যু করা হবে।


মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়ে বলা হয়, নতুন প্রচলিত এ নোটটিতে বিদ্যমান ৫০ টাকা মূল্যমান ব্যাংক নোটের ডিজাইন অপরিবর্তিত রয়েছে।

এতে বলা হয়, লালচে কমলা রং ব্যতীত প্রচলিত ৫০ টাকার নোটের ডিজাইন ও অন্যান্য সকল নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য (জলছাপ, দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য দুইটি বিন্দু, মাইক্রোপ্রিন্ট, খসখসে লেখা ইত্যাদি) অপরিবর্তিত থাকবে। নতুন রংয়ে মুদ্রিত বর্ণিত নোটের পাশাপাশি বর্তমানে প্রচলনে থাকা ৫০ টাকা মূল্যমানের অন্যান্য নোটও বৈধ ব্যাংক নোট হিসেবে যুগপৎ চালু থাকবে।...বিস্তারিত >>

যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ বন্দুকযুদ্ধ, পুলিশসহ নিহত ৬

শিরোনাম-27 (সূত্র: ইত্তেফাক) তারিখ:11-Dec-2019
যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি রাজ্যের জার্সি সিটিতে ভয়াবহ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এতে এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত ৬ জন নিহত হয়েছে। এছাড়া এতে আহত হয়েছে আরও দুই পুলিশ অফিসার।


বিবিসি তাদের এক অনলাইন প্রতিবেদনে জানিয়েছে, স্থানীয় সময় দুপুর ১২ টার পরপর একটি গোরস্থানে গোলাগুলির শব্দ পাওয়া যায়। সেসময় সন্দেহভাজন হামলাকারীদের দিকে অগ্রসর হলে পুলিশ অফিসার জোসেফ সিলস মারা যান বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দুই হামলাকারী একটি ট্রাকে করে ঘটনাস্থল থেকে সরে গিয়ে একটি সুপারমার্কেটে আশ্রয় নেয় এবং পুলিশের দিকে গুলি চালানো অব্যাহত রাখে। এরপর সোয়াটসহ বিশেষ নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনীর সদস্যরা ঐ এলাকাটি ঘিরে ফেলে। হামলাকারীদের সাথে গোলাগুলিতে দোকানের ভেতরে অন্তত ৫ জন নিহত হয়।

নিহতদের মধ্যে ২ জন সন্দেহভাজন হামলাকারী বলে ধারণা করা হচ্ছে। দেশটির কর্তৃপক্ষ এই ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে মনে করছে না।...বিস্তারিত >>

টিউশনের টাকা বাঁচিয়ে সাড়ে তিন হাজার মাস্ক বিতরণ

শিরোনাম-28 (সূত্র: প্রথম আলো) তারিখ:11-Dec-2019
১০ বন্ধুর একটি দল। কেউ পড়েন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে, কেউ চট্টগ্রাম কলেজে। সবাই প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। এই ১০ বন্ধু মিলেই করেছেন ব্যতিক্রমী এক কাজ। টিউশনের টাকা বাঁচিয়ে মঙ্গলবার দিনভর চট্টগ্রাম নগরের সাতটি জায়গায় প্রায় সাড়ে তিন হাজার মানুষের হাতে তাঁরা মাস্ক তুলে দিয়েছেন। ধুলা ও ধোঁয়া থেকে মানুষকে বাঁচাতে শিক্ষার্থীদের নেওয়া এমন উদ্যোগ প্রশংসা কুড়িয়েছে অনেকের।

ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নেওয়া এই ১০ তরুণ হলেন মুহাম্মদ হোছাইন, সাইফুদ্দিন খালেদ, মাহমুদ মিনহাজ, রবিউল হাসান, তাছনিম জান্নাত, মাহমুদা মেহেরু, ইসতিয়াক হোছাইন, শারমিন আক্তার, আনছারুল ইসলাম ও সুহাইল আজাদ। আজ সকাল আটটা বাজতেই সবাই জড়ো হন নগরের বহদ্দারহাট এলাকায়। সেখানে মানুষের হাতে হাতে বিনা মূল্যে মাস্ক তুলে দেন। এরপর মুরাদপুর এলাকা হয়ে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব, চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চবিদ্যালয়, জিইসি মোড়, আগ্রাবাদ এলাকায় মাস্ক বিতরণ করেন তাঁরা। শেষে জাম্বুরি পার্কে মাস্ক বিতরণের মাধ্যমে কর্মসূচি শেষ করেন।...বিস্তারিত >>

গাম্বিয়াই শেষ পর্যন্ত মিয়ানমারকে আদালতে নিয়েছে

শিরোনাম-29 (সূত্র: প্রথম আলো) তারিখ:11-Dec-2019
কয়েক দশক ধরে রোহিঙ্গাদের ওপর চরম নিষ্ঠুরতা করে পার পেয়ে গেছে মিয়ানমার। কখনোই আইনের তোয়াক্কা করেনি। এবারই প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক আদালতে নিয়ে গেছে আফ্রিকার ক্ষুদ্র রাষ্ট্র গাম্বিয়া। রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মানবতা বিরোধী অপরাধের দায়ে মিয়ানমারকে দোষী প্রমাণিত করার চেষ্টায় গাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ও বিচারমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মামাদু তাঙ্গারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন।

ইসলামি সহযোগিতা সংস্থায় (ওআইসি) কর্মরত সৌদি আরব ও বাংলাদেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

গাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ও বিচার মন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু ও গাম্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মামাদু তাঙ্গারা
গাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ও বিচার মন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু ও গাম্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মামাদু তাঙ্গারা
কয়েক দশক ধরে রোহিঙ্গাদের ওপর চরম নিষ্ঠুরতা করে পার পেয়ে গেছে মিয়ানমার। কখনোই আইনের তোয়াক্কা করেনি। এবারই প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক আদালতে নিয়ে গেছে আফ্রিকার ক্ষুদ্র রাষ্ট্র গাম্বিয়া। রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মানবতা বিরোধী অপরাধের দায়ে মিয়ানমারকে দোষী প্রমাণিত করার চেষ্টায় গাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ও বিচারমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মামাদু তাঙ্গারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন।


ইসলামি সহযোগিতা সংস্থায় (ওআইসি) কর্মরত সৌদি আরব ও বাংলাদেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য পাওয়া গেছে।


ইসলামি সহযোগিতা সংস্থায় (ওআইসি) কর্মরত ওই দুই দেশের কূটনীতিকেরা এই প্রতিবেদককে জানান, নিজের দেশে ২২ বছরের স্বৈরশাসন, রুয়ান্ডার গণহত্যার বিষয়ে জাতিসংঘের আদালতে কাজের অভিজ্ঞতা আর সবার শেষে কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলে গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক আদালতে নেওয়ার বিষয়টিকে সামনে নিয়ে আসেন।

নিউইয়র্কে কর্মরত বাংলাদেশের কূটনীতিকেরা জানিয়েছেন, গাম্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মামাদু তাঙ্গারা অতীতে দুই দফায় জাতিসংঘে তাঁর দেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ছিলেন। খুব স্বাভাবিকভাবে রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়টি সম্পর্কে তিনি আগে থেকেই জানতেন। ফলে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পর তিনিও রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় তাঁর দেশের ভূমিকা রাখার বিষয়ে অগ্রণী ভূমিকা রাখেন।

সৌদি আরবে কর্মরত বাংলাদেশের কূটনীতিকেরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রথম আলোকে বলেন, ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গা ঢলের পর থেকেই এ সমস্যা নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ আর আলোচনায় থেকেছে গাম্বিয়া। তৃতীয় দেশে প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে রোহিঙ্গাদের একটি অংশকে নেওয়ার বিষয়টিও যে গাম্বিয়া ভাবছে তা বাংলাদেশকে জানিয়েছে দেশটি।...বিস্তারিত >>

থানায় জিডি করলেই আসবে ফোন

শিরোনাম-30 (সূত্র: প্রথম আলো) তারিখ:10-Dec-2019
আপনি কি থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করেছেন? জিডি করতে কি আপনার কাছে টাকা দাবি করেছে পুলিশ? কত সময় লেগেছে? ফোনে কেউ এ রকম প্রশ্ন করলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। আপনি যদি ঢাকা রেঞ্জের কোনো থানায় জিডি করে থাকেন, তাহলে এমন ফোন আপনার কাছে আসবেই।

থানায় জিডি করলেই ফোনে মতামত নেওয়ার এই ব্যবস্থা চালু করেছে ঢাকা রেঞ্জ পুলিশ। ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, নরসিংদী, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, মাদারীপুর ও শরীয়তপুর—এই ১৩ জেলা নিয়ে ঢাকা রেঞ্জ। এতে থানার সংখ্যা ৯৬টি। তবে ঢাকা মহানগর ও গাজীপুর মহানগর এলাকা ঢাকা রেঞ্জের বাইরে। কাজেই ফোনের সুবিধা আপাতত পাচ্ছেন শুধুমাত্র ১৩ জেলার বাসিন্দারা।...বিস্তারিত >>

14-Dec-2019 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 4499+)
প্রশ্নঃ ইউনেস্কো (UNESCO) হলো জাতিসংঘ শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা (United Nations Educational, Scientific, and Cultural Organization). বিশ্বে শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতির প্রসার এবং উন্নয়নের মাধ্যমে মানুষের জীবন মানের উন্নয়ন ঘটানো এই সংস্থার কার্যক্রম। নিচের কোন সংস্থাটি শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন?
(A) জি৮ (বিশ্বের আটটি শিল্পোন্নত দেশের একটি অর্থনৈতিক বলয়)
(B) আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালত, নেদারল্যান্ডে।
(C) ইউনিসেফ (জাতিসংঘ শিশু তহবিল)