About আপডেট থাক, বিশ্বকে জয় কর

[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

অবশেষে বাংলাদেশের রাস্তায় চালু হতে যাচ্ছে ১৮শ’ সিসি ইঞ্জিন সম্বলিত মোটরবাইক। সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী-এসএসএফের কাছে অত্যাধুনিক এই বাইকগুলো হস্তান্তর করেন সরকার প্রধান শেখ হাসিনা।

সিদ্ধিরগঞ্জে গ্যাসের চুলার আগুনে দগ্ধ আট জনের মধ্যে নূরজাহান (৭০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে আরও সাত জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদের মধ্যে দুই জন আইসিউতে রয়েছেন। সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ভোরে সিদ্ধিরগঞ্জের সাহেবপাড়া এলাকায় বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তা ফারুক মিয়ার পাঁচতলা বাড়ির নিচতলার ফ্ল্যাটে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

নূরজাহান বেগমের মেয়ের জামাই ইলিয়াছ মিয়া জানান, রাতে তাদের এলাকায় গ্যাসের চাপ কম ছিল। এ কারণে অসাবধানতায় চুলা বন্ধ না করেই ঘুমিয়ে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। ভোরে রান্নার জন্য গ্যাসের চুলায় আগুন ধরাতে যান বৃদ্ধা নূরজাহান বেগম। ম্যাচের কাঠি দিয়ে ধরাতেই আগুন পুরো ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় নূরজাহান বেগমের চিৎকারে পরিবারের অন্যরা এগিয়ে গেলে তারাও দগ্ধ হন। আগুনে ঘরের চারটি রুমের খাট, ওয়্যারড্রোব, আলমারি, ফ্যানসহ সব আসবাবপত্র পুড়ে যায়। আর দগ্ধ হন আট জন। পরে তাদের দ্রুত ঢামেকের বার্ন ইউনিটে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে নূরজাহান বেগমের মৃত্যু হয়।

একই ভবনের চতুর্থ তলার ভাড়াটিয়া আলেয়া বেগম জানান, কয়েক বছর ধরে গ্যাসের চাপ কম থাকায় আমাদের সিলিন্ডার গ্যাস কিনে রান্নার কাজ করতে হয়। মাস শেষে বাড়িওয়ালাকে গ্যাসের প্রতি চুলায় এক হাজার টাকা করে বিল দিতে হয়। তিনি বলেন, গভীর রাতে বা ভোরে গ্যাসের চাপ ভালো থাকে। এ কারণে অনেকেই গ্যাসের চাপ বোঝার জন্য চুলার চাবি চালু রেখে ঘুমিয়ে যান। এতেই ভয়াবহ এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা তার।

নূরজাহান বেগমের মেয়ে লিপি আক্তার জানান, ভোরে তার মা চুলা জ্বালানোর জন্য ম্যাচের কাঠি ধরানোর সঙ্গে সঙ্গেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। বাড়ির কলাপসিবল গেটে তালা থাকায় বাইরের কেউ ঘরে ঢুকতে পারেনি। পরে আশপাশের লোকজন জানালা ভেঙে পানি ছিটিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন।

খবর পেয়ে আদমজী ইপিজেডের ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট এসে পানি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

সাত মাসেই ব্যাংক থেকে পুরো বছরের টাকা নিয়েছে সরকার
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

মুজিববর্ষে ছাত্রলীগের স্লোগান হওয়া উচিত
আমরা দুর্নীতি করব না, করতে দেব না : মাশরাফি

যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকদের দাবি,
তিন ঘণ্টায় করোনার টিকা তৈরি, পরীক্ষায় লাগবে কয়েক মাস!
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভানকা ট্রাম্প বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর করছেন।
দুবাইয়ে একটি সম্মেলনে যোগ দিতে গত শনিবার তিনি আরব আমিরাতে এসে পৌঁছান। সেখানে নারী উদ্যোক্তা উন্নীতকরণে বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে ইভানকার।

সৌদি আরবে মক্কা নগরীর মসজিদুল হারাম তথা কাবা শরিফে সেলফি তোলা নিষিদ্ধ করেছে সৌদি হারামাইন কর্তৃপক্ষ।


একই সঙ্গে মদিনার মসজিদে নববিতেও সেলফি তোলা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এ দুটি পবিত্র স্থানে কেউ সেলফি তুললেই দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তারা তার মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করবেন।

কাবা শরিফ ও মসজিদে নববিতে সেলফি তোলার ব্যাপারে ২০১৭ সালে প্রথম নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। তবে বিষয়টি আবার নতুন করে আলোচনায় এসেছে।

চলতি মাসেই ওই নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন হওয়ার কথা রয়েছে। এ জন্য এ মাসের প্রথম সপ্তাহে ফের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির সরকার।

করোনা আতঙ্ক : ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে রোবট, ভিডিও ভাইরাল

[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

করোনা থেকে বাঁচতে কাগুজে নোট পুড়িয়ে ফেলছে চীন
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

মেট্রোরেল কীভাবে চলবে দেখাতে ঢাকায় মকআপ ট্রেন
[[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]]

চীনের ভাইরাসে এশিয়া বিপদে
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

নতুন উদ্যমে মহাকাশে বুদ্ধিমান প্রাণী খুঁজতে চান জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে অবশ্যই ম্যাট্রিকে ফেল করতে হবে!
ম্যাট্রিকে ফেল করলেই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুবর্ণ সুযোগ তৈরি হবে। আর পাস করলে সুযোগ হাতছাড়া। শুধু বর্তমান যুগ নয়, অতীতের যে কোনো সময়ের সাথেই বিষয়টা বেশ বেমানান। তবে অবাক হওয়ার বিষয় হলেও এমনই একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে ভারতে। আর আশ্চর্যের বিষয় হলো ম্যাট্রিকে ফেল করা সেই শিক্ষার্থীরা দক্ষতা আর আবিষ্কারে ছাড়িয়ে গেছে বিশ্বের অনেক নামি-দামি বিশ্ববিদ্যালয়কেও।

এবার বিস্তারিত আলোচনা করা যাক। বলিউডের জনপ্রিয় সিনেমা থ্রি ইডিয়টসে আমির খানের আসল নাম থাকে ফুংসুখ ওয়াংরু। মজার ব্যাপার হচ্ছে, এই চরিত্রটি বাস্তবেই আছে এবং লাদাখে এরকম একটা বিশ্ববিদ্যালয়ও আছে; যেখানে কোনো বই-পুস্তক পড়ানো হয় না। সব কিছুই শেখানো হয় হাতে-কলমে। SECMOL এডুকেশন মুভমেন্টের প্রতিষ্ঠাতার নাম সোনাম ওয়াংচুক। থ্রি ইডিয়টস ছবিটি তার জীবন থেকেই বানানো হয়েছে।


সবচেয়ে বড় মজার ব্যাপারটি হল, ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে হলে অবশ্যই ম্যাট্রিকে ফেল করতে হবে। এ কারণে অনেকেই বলে থাকেন 'University of Failures'. এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের আশ্চর্য রকমের সব আবিষ্কার দেখা যায়। তারা মাটি দিয়ে এমনভাবে স্কুল বানিয়েছে বাইরে যখন মাইনাস ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াম তাপমাত্রা তখন ভিতরে প্লাস ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস থাকবে।
আগে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের অন্তর্গত ছিল লাদাখ। কিন্তু বর্তমানে উত্তরে কুনলুন পর্বতশ্রেণী ও দক্ষিণে হিমালয় দ্বারাবেষ্টিত এই অঞ্চলটি এখন ভারতের একটি কেন্দ্রশাসিত এলাকা। সেখানকার বিরান ধূ ধূ মরুভূমি অঞ্চলে গ্রীষ্মে পানি পাওয়া খুব মুশকিল। গরমে পানি পাওয়ার জন্য সাধারণ পাইপ দিয়ে ‘আইস স্টুপা’ তৈরি করেছেন সোনাম ওয়াংচুক। দেখতে বরফের টিলার মতো, যা দিয়ে সহজে গ্রিন হাউজ ইফেক্ট দূর করা যায়।

তিন-চারবার ফেল করা ছাত্ররা কেউ আজ বিশ্বসেরা সাংবাদিক, ফিল্মমেকার, স্বনামধন্য উদ্যোক্তা। এমনকি লাদাখের শিক্ষামন্ত্রী, যিনি কিনা ম্যাট্রিকে পাঁচবার ফেল করে পরে 'The Himalayan Institute of Alternatives'- এ ভর্তি হয়েছিলেন।

সাধারণত আমরা আশায় থাকি কবে ছুটি হবে আর এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বড় সাজা হলো এক সপ্তাহর ছুটি! বিশ্ববিদ্যালয়টা একটা দেশের মতো। ছাত্ররা বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করে নেতৃত্ব তৈরি করে, রেডিও স্টেশন সম্প্রচার করে, নিউজপেপার ছাপায় এমনকি নিজেদের খাবার নিজেরাই চাষ করে উৎপন্ন করে। সেগুলো বাজারে বিক্রি করে অর্থ যোগায় আবার বছর শেষে ঘুরতেও যায়।

এর মাধ্যমে ওদের অর্থনীতি, ভূগোল, জীববিজ্ঞান শিখা হয়। শিক্ষা নিয়ে রেভুল্যুশন করে সফল হওয়া এই ইঞ্জিনিয়ারের স্বপ্ন একটি ইউনিভার্সিটি করা। সেই ভার্সিটির নাম হবে ‘Doers University’, যেখানে কাজ করা হবে আবিষ্কার হবে কোনো পড়ালেখা হবে না। সোনাম ওয়াংচুক এক অনুপ্রেরণার নাম হয়ে উঠেছে ম্যাট্রিকে ফেলা করা শিক্ষার্থীদের কাছে।
[দৈনিক ‘বাংলাদেশ প্রতিদিন’ থেকে সংগ্রহীত]

“মিলিমিশি” কুইজঃ
**********
অপচয় কর না, অভাব হবে না। কাগুজে টাকা বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক "বাংলাদেশ ব্যাংক" কর্তৃক প্রবর্তিত হয়। কিন্তু; ৳১, ৳২ এবং ৳৫ টাকার নোট এবং ধাতব মুদ্রা যেগুলো বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে প্রচলিত হয়। বাংলাদেশে এক হাজার টাকা মূল্যের নোট কোন সাল থেকে চালু হয়?
(A) ২০০৮
(B) ২০০০
(C) ২০১০
*****
কুইজ মেনু থেকে উত্তর প্রদান করুন। মিলিমিশি’কে আরো সমৃদ্ধ করতে আপনার বন্ধুদের মিলিমিশি’তে আমন্ত্রণ জানান। ‘মিলিমিশি’ সম্পূর্ণ নিজস্ব প্রোগ্রামিং করে তৈরী করা বাংলাদেশী সোসাল সাইট। এখানে আমার তথ্য ও গোপনীয়তা শতভাগ নিরাপদ।

শত বিরোধিতা সত্ত্বেও নতুন নাগরিকত্ব আইন চালু হবে: মোদি
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে কর্ণফুলী নদীর নিচে টানেল নির্মাণের কাজ। এরই মধ্যে অর্ধেক কাজ শেষ হয়েছে। কক্সবাজার-টেকনাফের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ করার পাশাপাশি বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ার ক্ষেত্রে এই টানেল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা ব্যবসায়ীদের।


চীনের সাংহাইয়ের আদলে ওয়ান সিটি টু টাউন এই ধারণাকে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে চলেছে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণের কাজ। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশেই প্রথম নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ করতে যাচ্ছে। চার লেন বিশিষ্ট, দুটি টিউব সংবলিত ৩ দশমিক ৪ কিলোমিটার লম্বা টানেলের ১ হাজার ২২০ মিটার বোরিং মেশিনের মাধ্যমে ইতোমধ্যে খনন করে রিং বসানো হয়েছে।

করোনা ভাইরাস শনাক্তের জন্য বাংলাদেশকে ৫০০টি কিট উপহার দিয়েছে চীন। আগামী দুই দিনের মধ্যে কিটগুলো বাংলাদেশে পৌঁছাবে। রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) চীনা রাষ্ট্রদূত পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বিষয়টি জানিয়েছেন।


বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং রোববার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎ শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বিষয়টি জানান।

তবে চীন থেকে বাংলাদেশ যেমন কিট পাচ্ছে তেমনি বাংলাদেশও বিভিন্ন দেশে স্বাস্থ্যউপকরণ পাঠাচ্ছে। করোনাভাইরাস প্রতিহত করতে শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে চীনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, গাউন ও হাতমোজা পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ।

৩ হাজার বছরের পুরনো ওষুধে করোনা চিকিৎসায় শুরু চীনে! সফলতার দাবি
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

মুজিববর্ষে ১৪ হাজার অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা পাবেন বাড়ি: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

বলিউড তারকা হৃতিক রোশন তার সাবেক স্ত্রী সুসান খানকেই ফের বিয়ে করতে চলেছেন বলে গুঞ্জন উঠেছে।


সাবেক এই দম্পতির এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু ভারতীয় গণমাধ্যমকে এমনটিই জানিয়েছেন।

তার ভাষ্য– হৃতিক-সুসান আবার যে কোনো দিন দম্পতি হিসেবে সবার সামনে হাজির হবেন।

তিনি বলেন, আবার বন্ধনে আবদ্ধ হওয়া নিয়ে কাজ করছেন তারা। এরই মধ্যে সম্পর্কের সমস্যার দিকগুলো তারা চিহ্নিত করেছেন এবং

সাধ্যমতো তা থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করছেন। তাদের সময় দিন— অবশ্যই তারা আবার এক হবেন।

দীর্ঘদিন প্রেম করে হৃতিক রোশন ও সুসান খান বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু ২০১৪ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়। অবশ্য এর বছরখানেক আগে থেকেই আলাদা থাকতে শুরু করেন তারা।

[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

দানবাক্সে দেড় কোটি টাকা, বিপুল সোনা রূপা ও বিদেশি মুদ্রা
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য লন্ডন যেতে চান খালেদা জিয়া

[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

পুলিশের কঠোর অবস্থানের মধ্যেই বিএনপির বিক্ষোভ, কয়েকজন আটক
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

MP এর পূর্ণরূপ হলো Member of Parliament (সংসদ সদস্য), UNO=Upazila Nirbahi Officers (উপজেলা নির্বাহী অফিসার), DC= Deputy Commissioner, CO=Officer-in-Charge, DIG= Deputy Inspector General of Police. কোর্টে (আদালতে) যে সরকারী PP থাকে, তার পূর্ণরূপ কি?
(A) Public Procurement
(B) Public Procedure
(C) Public Prosecutor
****
কুইজ অপশন থেকে কুইজের উত্তর প্রদান করুন।

কোয়ারেন্টাইন এলাকা থেকে বেরিয়ে গণ-শৌচাগারে যাওয়ায় উত্তর কোরিয়ায় বাণিজ্য দপ্তরের এক কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সম্প্রতি চীন সফর থেকে ফেরার পর করোনোভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে তাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল।

কোরিয়ান দৈনিক ডং-এ ইলবো এক প্রতিবেদনে বলছে, গণ-শৌচাগারে যাওয়ার কারণে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় সরকারি ওই কর্মকর্তাকে গ্রেফতারের পর তাৎক্ষণিকভাবে গুলি করে হত্যা করা হয়।

উত্তর কোরিয়া এখনও করোনা ভাইরাসের কোনও ঘটনা নিশ্চিত করতে পারেনি। তবে চীন সীমান্তে করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।
বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব

ইদুর থেকে ছড়িয়ে পড়ল মারাত্মক ভাইরাস, ৭০ জনের মৃত্যু|
ইঁদুর থেকে ছড়িয়ে পড়া লাসা ভাইরাস জ্বরে আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়ায় ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (এনসিডিসি) বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে। খবর আল-জাজিরার।

এনসিডিসি জানিয়েছে, নাইজেরিয়ার তিনটি প্রদেশে লাসা জ্বর ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশটির তিন প্রদেশে এ রোগে আক্রান্ত হয়ে নতুন করে আরও ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া অন্ডো, ডেলটা ও কাদুনা রাজ্যে চারজন স্বাস্থ্যকর্মী নতুন করে লাসা জ্বরে আক্রান্ত হয়েছে।
চলতি বছরের জানুয়ারির মাঝামাঝির তুলনায় নাইজেরিয়ায় লাসায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। এখন পর্যন্ত মোট ৪৭২ জনের লাসা জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

চিকিৎসকরা বলছেন, খাবার, মলমূত্র ও গৃহস্থালি জিনিসপত্রের মাধ্যমে মানুষের শরীরে লাসা জ্বর ছড়ায়। ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে এই জ্বর প্রাণঘাতী নয়। এতে আক্রান্ত হলে শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি মাথাব্যথা, মুখে ঘা, মাংসপেশিতে ব্যথা ও ত্বকের নিচে রক্তক্ষরণ হয়। এছাড়া এই জ্বরে আক্রান্ত রোগীর অনেক সময় হার্ট ও কিডনি অচল হয়ে যায়।

লাসা জ্বরে আক্রান্ত রোগীকে ৬ থেকে ২১ দিন পর্যন্ত আলাদা স্থানে রাখতে হয়। কারণ এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে গেলেই অন্যদের মধ্যে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

জন্ম নিলে মরতে হবে। এটাই চিরন্তন সত্য। তবে কিছু মানুষ আছেন যারা মৃত্যুকে জয় করেননি বটে, কিন্তু নিজের বয়স দিয়ে অন্যকে চমকে দেওয়ার সাধ্য রাখেন। তেমনই এক ব্যক্তি গ্রিনিং চিতেস্তু ওয়াতানাবে। যার বর্তমান বয়স ১১২ বছর ৩৪৪ দিন। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক পুরুষ মানুষ তিনিই।

যুবক বয়সে পেশায় একজন কৃষক ছিলেন তিনি। নিজের দীর্ঘায়ুর রহস্য হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, ‘কখনও রাগ করা চলবে না, আর সর্বদা মুখে হাসি রাখতে হবে।’ ১৯০৭ সালে উত্তর জাপানের নিইগাতা শহরে জন্মগ্রহণ করেন গ্রিনিং চিতেস্তু ওয়াতানাবে। তিনি গ্রিনিস ওয়ার্ল্ডের তরফ থেকে সার্টিফিকেটও পেয়েছেন।

জাপানের এই বয়স্ক ব্যক্তি জানিয়েছেন, দাঁত না থাকলেও পুডিং এবং ক্রিম পাফ খেতে পছন্দ করেন তিনি। কারণ এই ধরণের খাবারগুলি দাঁত দিয়ে চাবাতে হয় না। এর আগে যে ব্যক্তি বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক ছিলেন, তার নাম মাসাজো নোনাকা। তিনিও জাপানেরই নাগরিক ছিলেন। ২০১৯ সালে ১১৩ বছরে মৃত্যু হয় তার।
গ্রিনিং চিতেস্তু ওয়াতানাবে সম্পর্কে বলতে গিয়ে তার বড় ছেলের পুত্রবধূ জানিয়েছেন, ওয়াতানাবেকে তিনি কখনও রাগতে দেখেননি। পাশাপাশি তিনি যথেষ্ট যত্নশীলও।

অন্যদিকে ওয়াতানাবে নিজের সম্পর্কে বলেছেন, ‘আমি মনে করি, এক ছাদের নীচে একটি বড় পরিবারের সাথে বসবাস করছি, এখানে নাতি-নাতনিরা আমার মুখের হাসি বাঁচিয়ে রেখছে।’ তার এই কথা থেকেই পরিষ্কার তিনি তার নাতি-নাতনিদের কতটা ভালোবাসেন।



বিডি প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ

করোনা ইস্যুতে কেন ডাকল না চীন? অসন্তুষ্ট যুক্তরাষ্ট্র
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

সারাজীবন অবিবাহিত থাকা নিয়ে মুখ খুললেন রতন টাটা
ব্যক্তিগত জীবনটা আড়ালেই রাখতে পছন্দ সেলিব্রেটিদের। তারা চান না ব্যক্তিজীবনের শত ক্ষত-বিক্ষত ও যাতনা সামনে আনতে। এ কারণে তাদের জীবনের অনেক অধ্যায় অন্তরালেই থেকে যায়। তবে এ ক্ষেত্রে ব্যক্তিক্রম রতন টাটা। একান্ত ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন টাটা সন্সের এই চেয়ারম্যান এমিরেটাস।


রতন টানার বয়স এখন ৮২। বিয়ে না করেই জীবন পার করে দিয়েছেন ভারতের অন্যতম সফল এই উদ্যোক্তা। তিন কেন বিয়ে করেননি তা জানতে আগ্রহ তার সুহৃদ ও ফলোয়ারদের।

আগে এক সাক্ষাৎকারে রতন টাটা জানিয়েছিলেন, যৌবনে একজনকে ভালো লেগেছিল। তবে সে ভালোবাসা পূর্ণতা পায়নি। কেন পূর্ণতা পায়নি সেটি এতদিন পর জানান। তবে এবার সেই তথ্য জানালেন ‘হিউম্যানস অব বোম্বে’ নামের একটি ফেসবুক পেজে। সেখানে নিজের বাবা-মায়ের ডিভোর্স নিয়েও খোলাখুলি কথা বলেন রতন টাটা।

রতন টাটা লিখেছেন– বেশ হাসিখুশিই ছোটবেলা কেটেছে। বড়ো হতেই দেখতে হলো বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ। তখনকার দিনে বিয়ে বিচ্ছেদের চল ছিল না। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের পর দাদি আমার দায়িত্ব নেন। মা ফের বিয়ে করার পর স্কুলে বন্ধুদের কাছে কটু কথা শুনতে হতো। কিন্তু দাদি আমাকে মূল্যবোধ ধরে রাখতে শিখিয়েছিলেন।

তিনি আরও লিখেছেন– দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর লন্ডনে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলাম। বেশ মনে আছে, আমার ও ভাইয়ের মধ্যে মূল্যবোধ গেঁথে দিয়েছিলেন দাদি। সবসময় বলতেন, এটা বলবে না, এটা করবে না, সম্মানটাই বড়। উনি সবসময় আমার পাশে থেকেছেন।

বাবার সঙ্গে নিজের সম্পর্কের কথাও লিখেছেন রতন টাটা। তিনি লিখেছেন, ছোটবেলায় ভায়োলিন শিখতে চেয়েছিলাম, বাবা পিয়ানো শিখতে বলেন। আমি স্থপতি হতে চেয়েছিলাম, তবে বাবা চেয়েছিলেন প্রকৌশলী হই। আমি যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে চেয়েছিলাম, উনি জোর করছিলেন ব্রিটেনের কলেজে পড়তে। সেই সময় দাদি না থাকলে যুক্তরাষ্ট্রের কার্নেল কলেজে ভর্তি হওয়া হতো না।

নিজের ইচ্ছায়ই প্রাধান্য পেয়েছে রতন টাটার জীবনে এমনটি জানিয়ে তিনি লিখেন– ওই কলেজে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তি হলেও বিষয় বদলে আর্কিটেকচার নিয়েছিলাম। কলেজের পর লসঅ্যাঞ্জেলেসেই শুরু করলাম চাকরি। দুই বছর সেখানে ছিলাম। নিজের গাড়িও ছিল। চাকরিটা বড় ভালোবাসতাম।

এর পরই নিজের ভালোবাসার মানুষটির কথা স্মরণ করেছেন রতন টাটা। লিখেন– লসঅ্যাঞ্জেলেসে প্রেমে পড়েছিলাম। বিয়ে প্রায় হয়েই যাচ্ছিল। কিন্তু তখনই অসুস্থ দাদির জন্য সাময়িকভাবে ফিরে আসতে বাধ্য হলাম। ভেবেছিলাম, যাকে ভালোবাসি তিনি ভারতে চলে আসবেন। কিন্তু ১৯৬২ সালে ইন্দো-চীন যুদ্ধ চলায় তার অভিভাবকরা এ দেশে আসার অনুমতি দেননি। তখনই ভেঙে যায় সম্পর্ক।

তথ্যসূত্র : ইন্ডিয়া ওয়েস্ট।

কোটি টাকার জিপ পাচ্ছেন ইউএনওরা

এখন থেকে মোটরসাইকেলসহ কোনো ধরনের যানবাহনে ছাত্রলীগের লোগো বা স্টিকার ব্যবহার করা যাবে না। এ সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সংগঠনটি।


শুক্রবার ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলা হয়, ছাত্রলীগের লোগো সংবলিত স্টিকার কোনো যানবাহনে ব্যবহার না করার জন্য নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেয়া হল।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থতার বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবহিত করতে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে টেলিফোন করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।


শুক্রবার সকালে রাজধানীর ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এ তথ্য জানান। তবে এ বিষয়ে বিএনপির কোনো লিখিত বক্তব্য তিনি পাননি বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

‘ছবি মুক্তির আগে বুকিং এজেন্টকে বড় অঙ্কের টাকা দিতে হয় প্রযোজকদের। এত ভাগা দিতে দিতে তো প্রযোজকের জান শেষ হয়ে যাবে। শিল্পের সঙ্গে যাঁরা জড়িত, তাঁদের সংকট থেকে উত্তরণের পথ বের করতে হবে। মন্ত্রীরা কথা বললে হবে না। শিল্পী, পরিচালক ও প্রযোজকেরা চলচ্চিত্রের ইতিহাস তৈরি করেছেন। তাই তাঁদেরই এসব নিয়ে ভাবতে হবে।’ গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় এক আলোচনা অনুষ্ঠানে এসব মন্তব্য করেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান।

[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

চাঁদপুরে ৫ শিক্ষার্থীকে থুতু খাওয়ালেন শিক্ষক
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

শাহজালালে পরিচ্ছন্নতাকর্মীর জুতায় মিলল ৩২ সোনার বার
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

আসামে সরকারি মাদ্রাসা-সংস্কৃত কেন্দ্র বন্ধ করছে বিজেপি
[ বিস্তারিত NEWS মেনুতে ]

ভালোবাসা দিবসে ১৯০ কোটি টাকার ফুলের ব্যবসা হবে বলে আশা করছেন ব্যবসায়ীরা
গত বছর ভালোবাসা দিবস ও পয়লা বসন্তে ২০০ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়েছিল।

দক্ষিণের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা প্রভাসের সঙ্গে আনুশকা শেঠি সম্পর্ক আছে বলে ছবিপাড়ায় জোর গুঞ্জন ছিল। দুজনের বিয়ে নিয়েও অনেক পাতার খবর লেখা হয়েছে। ‘বাহুবলী–২’-এর পর থেকে এই গুঞ্জন বেশি ছড়ায়। এমনকি ‘সাহো’র শুটিংয়ে প্রভাস আহত হওয়ার খবর পাওয়ার পর আনুশকার দুবাইতে উড়ে যাওয়ার খবরও বের হয়। সম্পর্ক না থাকলে কেন দুবাইতে উড়ে যাবেন দেবসেনা। তবে এখন আবার শোনা যাচ্ছে, প্রভাস নয়, এক ভারতীয় ক্রিকেটারের সঙ্গে ডেট করছেন আনুশকা। কোনো কোনো গণমাধ্যমে এমন খবরও বেরিয়েছে যে সাত পাকে বাঁধা পড়ার দিনক্ষণও নাকি ঠিক হয়ে গেছে।

মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগ এনে সাবেক নৌমন্ত্রী ও পরিবহনশ্রমিকনেতা শাজাহান খানের বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চেয়ে নিরাপদ সড়ক চাইয়ের (নিসচা) চেয়ারম্যান ও চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের করা মামলা আমলে নিয়েছেন আদালত।
মামলার আরজিতে ইলিয়াস কাঞ্চন দাবি করেন, গত বছরের ৮ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জে জেলা মিনিবাস সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের চালক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ইলিয়াস কাঞ্চন সম্পর্কে শাজাহান খান বলেন, ‘আপনি যে বিদেশিদের কাছ থেকে নিরাপদ সড়ক চাই এনজিওর নামে কোটি কোটি টাকা নিয়েছেন, আপনি কয়টা প্রতিষ্ঠান করেছেন? কয়টা স্কুল করেছেন? কতজন মানুষকে টেনে নিয়েছেন? ইলিয়াস কাঞ্চন কোথা থেকে কত টাকা পান, কী উদ্দেশ্যে পান এবং সেখান থেকে নিজের নামে নেতৃত্ব, বধূর নামে লাখ লাখ টাকা নেন, সেই হিসাব আমি জনসমক্ষে তুলে ধরব।’ শাজাহান খানের এই বক্তব্য পরদিন দেশের জাতীয় দৈনিকে প্রচারিত হয়।

মামলার আরজিতে ইলিয়াস কাঞ্চন আরও দাবি করেন, তাঁকে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন থেকে দূরে সরিয়ে দেওয়ার জন্য বিবাদী শাজাহান খান তাঁর সম্পর্কে মনগড়া ও মানহানিকর বক্তব্য দিয়েছেন।

মুজিব বর্ষের মধ্যে দেশের সব মানুষকে বিদ্যুতের আওতায় আনার মাধ্যমে প্রতিটি ঘরকে আলোকিত করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘আমাদের ৬৪টি জেলার মধ্যে প্রায় ৪০টি এখন পুরোপুরি বিদ্যুতের আওতায় এসেছে। বাকি জেলা ও উপজেলাকেও (শতভাগ বিদ্যুতের) আওতায় এনে মুজিব বর্ষে প্রতিটি ঘরকে আলোকিত করব। এ লক্ষ্যে নিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

বয়ঃসন্ধিতে সন্তানের যেসব সমস্যা হয়, কী করবেন?
বয়ঃসন্ধির পর অধিকাংশ বাবা-মায়ের সঙ্গে সন্তানের একটু দূরত্ব তৈরি হয়। কারণ এই সময়ে তার চারপাশে স্কুলের সহপাঠীদের একটি আলাদা জগৎ গড়ে ওঠে।


তবে এ সময় যেহেতু সন্তানের বোধশক্তি পূর্ণতা পায় না, তাই বাবা-মায়ের অনেকটা সতর্ক থাকতে হয়।

আসুন জেনে নিই বয়ঃসন্ধিতে সন্তানের যেসব সমস্যা হয়।

১. এ সময় আপনার সন্তানের বিভিন্ন হরমোনের পরিবর্তের ফলে শরীরে দ্রুত শারীরিক বৃদ্ধি ও বিকাশ ঘটে। তাই তারা স্বাধীনচেতা মনোভাব দেখায়।

২. পূর্ণবয়স্ক সুলভ ব্যক্তিত্ব। সামাজিক ও আর্থিক নির্ভরতা থেকে আপেক্ষিক স্বনির্ভরতায় রূপান্তর। এ ছাড়া অন্য লিঙ্গের প্রতি আকৃষ্ট যৌন কার্যকলাপের পরীক্ষা-নিরীক্ষা।

৩. মনে রাখবেন– সন্তান এ সময় বড় হলেও অপরিণত। তাই বাবা-মায়ের ভূমিকা থাকবে বন্ধুর মতো। একই সঙ্গে ওদের আচরণ নিয়ে গভীরভাবে ভাবতে হবে।

৪. সন্তানের সঙ্গে অতিরিক্ত রক্ষণশীল মনোভাব দেখাবেন না। তা হলে তারা অনেক কিছু আড়াল করবে। এমনকি কখনও কখনও বাবা-মায়েদের শত্রু মনে করবে তারা৷ ফলে সন্তানদের সঙ্গে বাবা-মায়ের দূরত্ব তৈরি হয়৷ অতিরিক্ত শাসন ওদের মানসিক বৃদ্ধিতে বাধা হতে পারে।

৫. সন্তানদের কাছে বাবা-মায়ের প্রত্যাশা থাকবে। তবে সেই প্রত্যাশার একটা সীমারেখা থাকা দরকার। বয়ঃসন্ধির সময় সন্তানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারাটাই বুদ্ধিমানের কাজ। কারণ সত্যিকারের বন্ধুকে টিনএজাররা এই সময়টা আঁকড়ে ধরতে চায়। তাই বাবা-মা যদি হন সেই বন্ধু, তা হলে ক্ষতি কী?

তথ্যসূত্র: কলকাতা২৪

আজহারীর ৫ কোটি টাকা দামের গাড়ি চালানোর ছবি ভাইরাল
সমালোচনা ও বিতর্কের মধ্যেই হঠাৎ করে ‘তাফসিরুল কোরআনের’ কয়েকটি মাহফিল মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করে গবেষণার কাজে মালয়েশিয়া চলে যাওয়া ঘোষণা দিয়েছেন সময়ের আলোচিত ইসলামি বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী।

তবে এর পরও সমালোচনা যেন তার পিছু ছাড়ছে না। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে আজহারীর গাড়ি চালানোর কিছু দৃশ্য।

ছবিতে দেখা গেছে, মিজানুর রহমান আজহারী একটি ‘বেন্টলি’ গাড়ি চালাচ্ছেন যার বাজারমূল্য কমপক্ষে ৫ কোটি টাকা।

ছবিগুলো আজহারীবিরোধী বিভিন্ন ফেজবুক পেজ ও ‘নাইদরেইনস’ নামে এক আইডি থেকে পোস্ট করে প্রশ্ন ছোড়া হচ্ছে, ইসলামের দাঈ হয়ে মালয়েশিয়ায় কি করে এতো দামি গাড়ি কেনেন আজহারী? মাহফিলে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা:) ও সাহাবাদের ত্যাগি, সাদাসিধে জীবনের কথা বলে সেখানে কি তিনি বিলাসবহুল জীবনযাপন করছেন?

সমালোচনাকারীরা বলছেন, দেশে কোটি কোটি টাকা কামিয়ে বিলাসবহুল জীবনযাপন করতেই মালয়েশিয়ায় চলে গেছেন আজহারী।

বিষয়টি আজহারীর ব্যক্তিগত বলে অনেকেই বলছেন, মাহফিলমঞ্চে তিনি কি বলেছেন তা নিয়া কথা না বলে তার সম্পত্তি, আয়-ব্যয় বা তিনি কি গাড়ি চালাবেন তা নিয়ে কথা না বলাই উত্তম। এটা পুরোটাই তার ব্যক্তিগত ব্যাপার।

ছবিগুলোকে এডিট বলে অনেকেই বিষয়টি এড়িয়ে যেতে বলেছেন।

এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আজহারীভক্তদের সঙ্গে তার বিরোধীরা তুমুল বাকবিতণ্ডায় মেতেছেন।

এমন পরিস্থিতিতে ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া (আইআইইউএম) এর বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী যুগান্তরকে বলেন, যারা মালয়েশিয়ায় যাননি বা থাকেননি তারাই এমন সমালোচনা করছেন।

উল্লেখ্য, মিজানুর রহমান আজহারী মালয়েশিয়ায় এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন।

ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানান, মালয়েশিয়ায় মিজানুর রহমান আজহারীর নিজের কোনো গাড়ি নেই। তিনি সেখানে ভাড়ায় গাড়ি চালিয়েছেন।

আজহারীকে গাড়ি ভাড়া নিয়ে হলো কেন প্রশ্নে নাইমুল ইসলাম নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘মালয়েশিয়ায় পর্যাপ্ত গণপরিবহন থাকলেও দূরবর্তী কোনো স্থানে বা ভ্রমণে বের হলে অথবা গুরুত্বপূর্ণ কোনো কাজে অনেকেই গাড়ি ভাড়া নেন। আমিও এই কাজটা মাঝেমধ্যে করি। তিনিও হয়ত এমনটাই করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। আপনি কুয়ালালামপুরে গেলে বাংলাদেশে বেশি ব্যবহৃত গাড়িগুলো দেখবেন না। মালয়েশিয়ায় যেসব গাড়ি সহজলভ্য তা ঢাকার গুলশান-বনানীতেও সচরাচর চোখে পড়ে না।

তবে আজহারীর এই গাড়ি মালয়েশিয়ায় নয়; সিঙ্গাপুরে চালিয়েছেন বলে ধারণা করছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় অনুষ্ঠিত মাহফিলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি লোক সমাগম হতে দেখা গেছে যেখানে মিজানুর রহমান আজহারী উপস্থিত ছিলেন। আজহারীর কোনো কোনো মাহফিলে ৫ লাখের বেশি মুসল্লি সমাবেশ ঘটেছে।

এদিকে আজহারীর সঙ্গে জামায়েত-ইসলামের সম্পৃক্তরা রয়েছে বলে অভিযোগ করেন সরকার দলীয় কেউ কেউ। এর পর পরই অজ্ঞাত কারণে চলতি বছর মার্চ পর্যন্ত সব মাহফিল স্থগিত করেন আজহারী।

ঠিক কী কারণে তিনি তার সব মাহফিল স্থগিত করেছেন তা পরিষ্কার করে বলেননি।
[যুগান্তর]

17-Feb-2020 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 4155+)
প্রশ্নঃ অপচয় কর না, অভাব হবে না। কাগুজে টাকা বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক "বাংলাদেশ ব্যাংক" কর্তৃক প্রবর্তিত হয়। কিন্তু; ৳১, ৳২ এবং ৳৫ টাকার নোট এবং ধাতব মুদ্রা যেগুলো বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে প্রচলিত হয়। বাংলাদেশে এক হাজার টাকা মূল্যের নোট কোন সাল থেকে চালু হয়?
(A) ২০০৮
(B) ২০০০
(C) ২০১০