• মিনা কার্টুনের মিনারও আজ বিয়ে হয়ে গেছে।সেও আজ ঘর-সংসার সামলাতে ব্যস্ত।
• সিসিমপুরের ইকরি, সিকু, হালুম, টুকটুকিও আজ ভার্সিটিতে পড়ে।
• টম আর জেরিতো এখন বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছে।
• মিস্টার বিন এখন ব্যস্ত হলিউড নিয়ে।
• টেস্টে লারার ৪০০ রান আজও কেউ ভাঙতে পারেনি।
• রক, আন্ডারটেকার, জন সিনাকেও আজকাল মারপিট করতে দেখা যায় না।
• মেসি, রোনালদো তো আগের মতো আর ড্রিবলিং করতে পারে না।
• "ইত্যাদি" তেও আজ রসকস নেই।
• "Boost" কিনলে আজ ব্যাট ফ্রি দেয়না।
• ঈদেও আজকাল তেমন আজ আনন্দ নেই।
• চিপসের প্যাকেটের সাথেও আজ স্টিকার, খেলনা, সৈন্য ফ্রি দেয় না।
• নোকিয়ে ফোনের সাপটাও আজ বুড়ো হতে হতে মৃত প্রায়।
• মান্না, রুবেলের ফাইটিং সিনগুলোতে আর "মার, মার" বলে চিল্লানো হয় না।
• তক্তা দিয়ে বানানো ব্যাট আর ৪ জনে মিলে ২০ টাকা দিয়ে কেনা বলে আর ক্রিকেট খেলা হয় না।

ছোটবেলায় ভাবতাম কবে বড় হবো। আজ বড়ো হয়ে ভাবছি, I wish I were a child again.
বড়ো হয়ে কর্মব্যস্ততা, লেখাপড়া আর প্রযুক্তির চাপে আজ আমরা জীবনের আসল আনন্দগুলিই ভুলতে বসেছি।আহ! কি সুন্দরই না ছিলো সেই সোনালী দিনগুলি।ছিলোনা কোনাকিছুর চাপ, ছিলোনা কোনো কৃত্তিমতা। ছিলো অসীম ভালোবাসা।মায়ের কোলে মাথা রেখে গল্প শোনা, বাবার সাথে রোজ বাজারে যাওয়া, বন্ধুদের সাথে প্রতি বিকেলে খেলতে যাওয়া, সিসিমপুরের নতুন এপিসোডের জন্য অপেক্ষা করা আরও কতো কি!
কিন্তু সবার উপরে বাস্তবতা মেনে নিতে হবে।বড় হয়ে গেছি আমরা।ব্যস্ততার চাপে ওইসব আর মনে পড়ে না তা ঠিক কিন্তু ডিপ্রেশনে থাকা অবস্থায় ওইসব দিনগুলোকে মনে পড়লে মুচকি হাসিটা আটকে আর রাখা যায় না!
আজও যখন ছোটোরা আমাদের সামনে বসে টম এন্ড জেরি দেখতে থাকে তখন বড় বড় ভাবটা নেয়ার জন্য তাদেরকে চ্যানেলটা চেঞ্জ করতে বলি।কিন্তু মন চায়, বৃষ্টির দিনে দোকান থেকে ১০ প্যাকেট পটেটো ক্রাক্যার্স কিনে এনে শুয়ে তা খেতে খেতে কার্টুন দেখতেই একটা দিন পার করে দেই!
ভালো ছিল সেই সোনালি অতীতটা।

বিশ্ব ইনডোর আর্চারি চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের রোমান সানা নির্বাচিত হলেন বর্ষসেরা ব্রেক থ্রু অ্যাথলেটি হিসেবে! শুধু তাই নয়, রিকার্ভ (ছেলে) ক্যাটাগরিতে ব্রোঞ্জ জিতে নিয়ে বাংলাদেশকে গর্বিত করলেন তিনি। অভিনন্দন!... Read More>>

ক্ষমতা চিরদিন থাকেনা,,,
দেখেন তো চিনতে পারেন কিনা?

একসময়ের তুখোড় রাজনীতিবিদ, কয়েক বারের অর্থমন্ত্রী!! যার গাড়ি রাস্তায় বের হলে পুরো রাস্তার গাড়ি বন্ধ হয়ে যেতো!! চারপাশে কতো পুলিশ, কতো প্রটোকল থাকতো!! হ্যাঁ ইনি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত!! বই মেলায় তিনি হুইল চেয়ারে করে আসছেন!! নেই কোনো প্রটোকল, কিছুই থমকেও নেই!! সবকিছুই স্বাভাবিক কিন্তু... Read More>>

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় ১৩ হাজার ৬৩৯ কোটি ১ লাখ টাকা খরচে ৯টি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রকল্পগুলো সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন http://bit.ly/2P3KGma... Read More>>

মিলিমিশি দ্রুত আপডেট হও, তোমার অপেক্ষায় থাকি। সত্যি মন থেকে মিশিমিশি ভাল লাগে। ... Read More>>

18-Feb-2020 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 2745+)
প্রশ্নঃ পদ্মা সেতুর ফলে প্রত্যক্ষভাবে প্রায় ৪৪,০০০ বর্গ কিঃমিঃ বা বাংলাদেশের মোট এলাকার ২৯% অঞ্চলজুড়ে ৩ কোটিরও অধিক জনগণ প্রত্যক্ষভাবে উপকৃত হবে। বরিশালসহ পুরো দক্ষিণ অঞ্চলের সাথে রাজধানীর পরিবহণ ব্যায় ও সময় কমে আসবে। রেল, গ্যাস, বৈদ্যুতিক লাইন এবং ফাইবার অপটিক কেবল সম্প্রসারণের ব্যবস্থা রয়েছে। এই সেতুর ফলে দেশের জিডিপি উল্লেখ যোগ্য হারে বৃদ্ধি পাবে। পদ্মা সেতুর দৈঘ্য কত?
(A) ৬.১৫ কি. মি.
(B) ৪.৮ কিমি
(C) ৯.৫০ কি. মি.