/একটি আত্মবিধ্বংসী জাতির ধ্বংসের উপাখ্যান#

1. দুধে: শ্যাম্পু, ডিটারজেন্ট পাউডার
2. গরুর দুধ বৃদ্ধিতে: পিটুইটারী গ্ল্যান্ড ইনজেকশন
3. মাছে: ফরমালিন
4. শাকসবজি টাটকা রাখতে: কপার সালফেট
5. আম, লিচু জাম পাকাতে: কারবাইড
6. আম, লিচু, জাম সংরক্ষণে: ফরমালিন
7. ফল গাছে থাকতেই: হরমোন ও কীটনাশক
8. তরমোজে সিরিন্জ দিয়ে দেয়: পটাশিয়াম পারম্যাঙ্গানেট
9. কলা পাকানো হয়: ক্যালসিয়াম কারবাইড
10. কফি পাউডারে: তেঁতুলের বিচির গুড়া
11. মসলায়: ইটের গুড়া
12. হলুদে: লেড ক্রোমেট/ লেড আয়োডাইড
13. মুড়িকে ধবধবে সাদা ও বড় করতে: হাইড্রোজ ও ইউরিয়া
14. দীর্ঘক্ষন মচমচে রাখার জন্য জিলিপি, চানাচুরে: পোড়া মবিল
15. আকর্ষণী করতে আইসক্রিম, বিস্কুট, সেমাই, নুডলস ও মিষ্টিতে: কাপড় ও চামড়ায় ব্যবহৃত রং
16. ফলের রস তৈরী: ক্যামিকেলস দিয়ে
17. বিদেশী মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্য/ঔষধ/ক্যামিকেলস: নতুন মেয়াদের স্টিকার লাগিয়ে
18: চাল চকচক করতে: ইউরিয়া
(সূত্র: ইত্তেফাক, পৃষ্ঠা: 2, তারিখ: 26/05/2018)
19. পিয়াজু, জিলাপিতে: এমোনিয়া।

আরও আছে...
১. পানি-২০ লিটার (২ টাকা গ্লাস) অধিকাংশই অটোমেশিনে নয় হাতে ঢালা হয়। পারক্সাইড দিয়ে নয় নাম মাত্র পানিতে ধুয়া হয়।
২. কলায় ক্ষতিকর কার্বাইড দেওয়া হয়।
৩. ফলে হরমোন প্রয়োগ করা হয়।
৪. সবুজ ফল ও শাকশব্জিতে কাপড়ের সবুজ রঙ ব্যাবহার হয়।
৫. সসেও তাই।
৬. খামারের মুরগিতে বিশাক্ত ক্রোমিয়াম, লেড আর এন্টিবায়োটিক তো আছেই।
৭. চাষের মাছেও তাই।
৮. ডিমতো মুরগি থেকেই আসে তো উপরের জিনিষ তো এখানে থাকবেই।
৯. জুস, লাচ্ছি তো উচ্চ মাত্রার প্রিজারভেটিভ।
১০. রুহ আফজাহ আর হরলিক্স তো প্রমানে অপারগ যে এতে আসলে কল্যাণকর কিছু আছে।
১১. ভাজাপোড়া এক তেল ২ দিনেই দুষিত হয় আর তা চলে টানা ১ মাস (হাই এসিড লেভেল)।
১২. মসল্লায় আলাদা রঙ (মেটালিক অক্সাইড)।
১৩. সরিষার তেলে ঝাঁজালো ক্যামিকেল।
১৪. সয়াবিনে পামওয়েল।
১৫. শুটকিতে কিটনাশক।
১৬. কসমেটিক্সে ক্যান্সারের উপাদান লেড, মারকারি ও ডাই।
১৬. আর সবার সেরা 'ফরমালিন', তিনি তো আছেন সবখানেই।

কি খাবেন? কিভাবে খাবেন? একটু ভাবেন! অন্যকেও ভাবতে দিন।
বাঙালির আরো অনেক আবিষ্কার আছে যা আমরা হয়তো জানি না। আমরা এক রাতে ধনী হতে চাই এই জাতিকে ধ্বংস করার বিনিময়ে।
আসুন আমরা সবাই মিলে এই চক্রকে প্রতিহত করি। জাতিকে ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচাই....

একটি সত্য ঘটনাঃ-
এক মহিলার গর্ভে সন্তান রেখে তার স্বামী মারা যায়, এবং
কিছুদিন পর ওই মহিলার একটি পুত্র সন্তান হয়!
মহিলাটি অনেক কষ্ট করে তার ছেলেকে লালন-পালন করে
এবং প্রাপ্ত বয়স্ক হলে সেই
ছেলেটিকে বিয়ে করায়।
বিয়ের কিছু দিন পর ছেলেটি তার মায়ের সাথে খারাপ আচরণ
করতে শুরু করে এবং বাড়ী থেকে বের করে দেয়!
তখন মহিলা কোন দিশা না পেয়ে ওই... Read More>>

#নোবেল_পুরস্কার_২০১৯
________________________
চিকিৎসা বিজ্ঞানে - ৩ জন
-----------------------------------------
১। উইলিয়াম জি কাইলিন জুনিয়র - যুক্তরাষ্ট্র।
২। স্যার পিটার জে রেটক্লিফ - যুক্তরাজ্য।
৩। গ্রেগ এল সেমেনজা - যুক্তরাষ্ট্র।
অবদান - কীভাবে কোষগুলি উপলব্ধি করে এবং অক্সিজেনের সহজলভ্যতার সাথে খাপ খায়।
____________________
পদার্থবিজ্ঞানে - ৩ জন
----------------------------------
১। জেমস পিবলস -... Read More>>

জাতীয় দিবসঃ- বাংলাদেশে জাতীয় দিবস হিসেবে শহীদ দিবস, স্বাধীনতা দিবস, পহেলা বৈশাখ বা বাংলা নববর্ষ ও বিজয় দিবস সর্বজনীনভাবে উদ্যাপিত হয়ে থাকে।

শহীদ দিবস বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের পর থেকেই রাষ্ট্রীয়ভাবে ফেব্রুয়ারি মাসের ২১ তারিখ শহীদ দিবস হিসেবে উদযাপিত হয়ে আসছে। পাকিস্তান সরকার কর্তৃক উর্দুকে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা... Read More>>

--: বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম :--

قُلْ إِنَّ صَلَاتِى وَنُسُكِى وَمَحْيَاىَ وَمَمَاتِى لِلَّهِ رَبِّ الْعٰلَمِينَ

অর্থ: বল, ‘নিশ্চয় আমার সালাত, আমার কুরবানী, আমার জীবন ও আমার মৃত্যু আল্লাহর জন্য, যিনি সকল সৃষ্টির রব’।
(সূরা আল-আন'আম, আয়াতঃ ১৬২)... Read More>>

সেই একাত্তরের প্রজন্মের আমাদের স্বাধীনতার জন্য কতটুকু আত্মত্যাগ করেছিল এবং কী ধরনের প্রতিকূল এবং বিপদসংকুল পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে তাদের যেতে হয়েছিল।

=============

একাত্তরে পাকবাহিনী আমাদের উপর যে বর্বরতা চালিয়েছিল তা গত শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ গণহত্যাগুলোর মধ্যে একটি। প্রতিদিন ইচ্ছেমত মানুষ ধরে নিয়ে যাওয়া হতো আর লাইনে ধরে দাঁড়... Read More>>

যে স্বপ্ন ভয় দেখায় না সে সপ্ন কখনই বড় হয় না.... ... Read More>>

15-Nov-2019 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 4809 জন)
প্রশ্নঃ আমরা যে ওয়েব সাইট গুলো ব্যবহার করে থাকি তাকে ‘সারফেস ওয়েব’ বলা হয়। আর যে ওয়েব সাইটগুলো অত্যন্ত গোপন ভাবে থাকে এমনকি গুগলে সার্চ দিয়ে পাওয়া সম্ভব না। শুধুমাত্র ওয়েব সাইটের ঠিকানা জানার মাধ্যমে ‘বিশেষ ওয়েব ব্রাউজার’ দ্বারা প্রবেশ করা সম্ভব, তাদেরকে ‘ডার্ক ওয়েব’ বলা হয়। ডার্ক ওয়েবের মাধ্যমে সাধারণত অবৈধ কার্যকলাপ যেমন ড্রাগ ও অস্ত্র ক্রয় বিক্রয়, হ্যাকিং, সন্ত্রাশী কর্মকান্ড এই ডার্ক ওয়েবের মাধ্যমেই করা হয়।। ন্যাটো (NATO) কি?
(A) সামরিক সহযোগিতার জোট
(B) সন্ত্রাশী সংগঠন
(C) জাতি সংঘের শান্তি মিশন