এই শর্তগুলো না মানলে আপনার দোয়া কখনোই কবুল হবে না

আপনি আল্লাহ তা’য়ালার দরবারে দোয়া করলেন আর আল্লাহ তা’য়ালা আপনার সেই দোয়া কবুল করে নিলেন বিষয়টি কিন্তু এমন নয়। মূলত ৮টি শর্ত পূরণ না করলে মহান আল্লাহ তা’য়ালা কখনোই আপনার দোয়া কবুল করবেন না। তাই এখনই জেনে নিন, সেই ৮টি শর্ত।

১। মা-বাবার হক আদায় করা। যারা মা-বাবার অবাধ্য হয়, তাদের দোয়া কবুল হয় না। ২। হালাল উপায়ে জীবিকা অর্জন। খাদ্য-খাবার পোশাক পরিচ্ছদ সবকিছু হালাল আয়ের হতে হবে। ৩। সাধ্য অনুযায়ী আত্মীয়-স্বজনের হক আদায় করা। যারা আত্মীয় স্বজনের প্রতি লক্ষ রাখে না, তাদের হক আদায় করে না, তাদের দোয়া কবুল হয় না।

৪। কোনো মুসলমানের সাথে তিন দিনের বেশি কথা-বার্তা বন্ধ রাখা যাবে না। এ রকম লোকের দোয়া কবুল হয় না। এর দ্বারা বুঝানো হয়েছে যে, মুসলমানের সাথে সু-সম্পর্ক থাকতে হবে। ৫। সাধ্য মতো ভালো কাজ করা ও করতে উৎসাহিত করা। হাদিস শরিফে রাসুলুল্লাহ সা. বলেছেন, ‘তোমরা মাথা উঁচু করে চিৎকার করতে থাক অথচ তোমাদের দোয়া কবুল হয় না। হবে কিভাবে? তোমাদের চোখের সামনে অনেক অন্যায় কাজ হয়, সাধ্য থাকা সত্ত্বেও তোমরা তাতে বাধা প্রদান করো না।

৬। গীবত বর্জন করা। গীবতকারীদের দোয়া কবুল হয় না। ৭। পরশ্রীকাতরতা অর্থাৎ অন্যের ভাল দেখে মনে মনে হিংসা লাগা এবং সেটা ধ্বংস হওয়ার কামনা করা অন্যায়। মনের এই হিংসা পরিত্যাগ করতে হবে। ৮। কৃপণতা বর্জন করতে হবে। যতটুকু ব্যয় করা প্রয়োজনব, সেখানেও ব্যয় না করে অর্থ জমা করে রাখার অভ্যাস বর্জন করতে হবে ।

আরো পড়ুন: মহানবী (সা.) এই ৭টি কাজ বিশেষভাবে করতে আদেশ করেছেন

আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সঠিক সময়ে এবং নিয়মিত সালাত আদায়ের পাশাপাশি কিছু কাজ বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে করতে আদেশ করেছেন। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) মূলত ৭টি কাজ বিশেষভবে করতে আদেশ করেছেন। এ সম্পর্কে বুখারী শরীফ, তিরমিযী ও মুসলীম শরীফে স্পষ্ট ব্যাখ্যা রয়েছে।

আরবি হাদিস: وَعَنْ أَبي عُمَارَةَ البَرَاءِ بنِ عَازِبٍ رَضِيَ اللهُ عَنهُمَا، قَالَ: أَمَرَنَا رَسُولُ اللهِ ﷺ بِسَبْعٍ: بِعِيَادَةِ المَرِيضِ، وَاتِّبَاعِ الجَنَائِزِ، وَتَشْمِيتِ العَاطِسِ، وَنَصْرِ الضَّعِيفِ، وَعَوْنِ المَظْلُومِ، وَإفْشَاءِ السَّلاَمِ، وَإبْرَارِ المُقسِمِ . متفقٌ عَلَيْهِ، هَذَا لفظ إحدى روايات البخاري

বাংলা হাদিস: আবূ উমারা বারা ইবনে আযেব রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাদেরকে সাতটি (কর্ম করতে) আদেশ করেছেনঃ (১) রোগী দেখতে যাওয়া, (২) জানাযার অনুসরণ করা, (৩) হাঁচির জবাব দেওয়া, (৪) দুর্বলকে সাহায্য করা,

(৫) নির্যাতিত ব্যক্তির সাহায্য করা, (৬) সালাম প্রচার করা, এবং (৭) শপথকারীর শপথ পুরা করা। (বুখারি ১২৩৯, ২৪৪৫, ৫১৭৫, ৫৬৩৫, ৫৬৬০, ৫৮৩৮, ৫৮৪৯, ৫৮৬৩, ৬২২২, ৬২৩৫, ৬৬৫৪, মুসলিম ২০৬৬, তিরমিযি ১৭৬০, ২৮০৯) সূত্র: অনলাইন থেকে সংগৃহীত।

মাত্র একটি রবি অথবা এয়ারটেল সিম থেকে সকল মোবাইল অপারেটরের নাম্বারে রিচার্জ করা সহ নানা রকম সুযোগ সুবিধা।
বিস্তারিত জানতে কল করুন।
(নরসিংদী এবং কিশোরগঞ্জ জেলার মধ্যে ডিলার অথবা রিটেইলার সংযোগ নিতে)
মোবাইল- 01751333338 এবং নিচের লিঙ্ক ভিজিট করুন।
https://web.facebook.com/PayStationNarsingdi/posts/2342902885964549... Read More>>

শিরোনাম-2 (সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন) তারিখ:20-Jul-2019

হরমুজ প্রণালী থেকে একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটক করার পর জরুরি বৈঠক করেছে ব্রিটিশ মন্ত্রিসভা। শুক্রবার রাতে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে এক বিবৃতিতে বলা হয়, লন্ডন এ ব্যাপারে আরও বেশি তথ্য সংগ্রহ ও পুরো পরিস্থিতি মূল্যায়নের চেষ্টা করছে। খবর পার্সটুডের।...বিস্তারিত >>... Read More>>

শিরোনাম-1 (সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন) তারিখ:20-Jul-2019

কাজাখস্তানের এসিল জেলার একটি ছোট গ্রাম ‘কালাচি’। এই গ্রামের লোকজন চলতে চলতে, কথা বলার সময় বা কাজ করতে করতে আচমকাই ঘুমিয়ে পড়ছেন! অথচ কেউই ক্লান্ত নয়। কারও ঘুম ভাঙছে ছয়-সাত ঘণ্টা পরে, কখনও কেটে যাচ্ছে তিন-চার দিনও! এক দিন নয়, বছরের পর বছর ধরে ঘটছে এই ঘটনা।

গ্রামবাসীদের এই ঘুমিয়ে পড়াই গোটা বিশ্বকে... Read More>>

19-Jul-2019 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 3623 জন)
প্রশ্নঃ শত বছর জীবত থেকে কেউ যে কাজ করবে, তা যদি তুমি পঞ্চাশ বছর জবীত থেকে করতে পার তাহলে তুমিও শত বছর জীবন পেলে। আমরা চাইলে কর্মের পরিধি ও তাৎপরতা বৃদ্ধি করে শত বছর বাঁচতে পারি। মানে পঞ্চাশ বছর বেচেঁ থেকে শত বছর বা তারও বেশি বছরের সমান কাজ করতে পারি। ১২ কর্মঘন্টার মধ্যে ‘কামাল’ প্রতিদিন ৪ঘন্টা অপচয় করেন ও ৮ঘন্টা কাজ করেন অন্যদিকে তার সহকর্মি ‘শামিম’ কোন সময় অপচয় করেন না। দুজনেই ১৮বছর চাকুরী করলে শামিমের তুলনায় কামাল কত বছর কম চাকুরী করলো?
(A) ৯ বছর
(B) ৪ বছর
(C) ৬ বছর
06-Jul-2019 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 4053 জন)
প্রশ্নঃ চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া আর কোন এ্যান্টিবায়টিক নয়। বিশেষজ্ঞদের মতে ঐষধ (এ্যান্টিবায়িটিক) এর অপব্যবহার মানব সভ্যতা ধ্বংশের জন্য দায়ি হবে। কারণ অনাকাঙ্ক্ষিত/অসম্পূর্ণ এ্যান্টিবায়িটিক ডোজ প্রয়োগের ফলে মানব শরীরে একসময় আর কোন এ্যান্টিবায়িটিক কাজ করবে না। বর্তমানেই বিভিন্ন হসপিটালে এই সমস্যা দেখা দিয়েছে, এ অবস্থা অব্যাহত থাকলে সামান্য রোগেই চোখের সামনে রোগী মারা যাবে। বাংলাদেশের সব চেয়ে বড় সরকারি হাসপাতাল কোনটি?
(A) স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ
(B) শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ
(C) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
02-Jul-2019 তারিখের কুইজ
(অংশগ্রহণ করেছেন: 4208 জন)
প্রশ্নঃ রাশিয়ার ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. গুপ্তপ্রসাদ রেড্ডি (বি ভি) বলেছেন, ক্যান্সার কোনো মরণব্যাধি নয়, মাত্র দুটি উপায় অনুসরণ করলেই উধাও হবে ক্যান্সার। ১. প্রথমেই সব ধরনের সুগার বা চিনি খাওয়া ছেড়ে দিন। ২. এরপর এক গ্লাস গরম পানিতে একটি লেবু চিপে মিশিয়ে নিন। টানা তিন মাস সকালে খাবারের আগে খালি পেটে এই লেবু মিশ্রিত গরম পানি পান করুন। উধাও হয়ে যাবে ক্যান্সার। -- ক্যান্সার হতে পারে এ জন্য নিচের কোন মাছটি খাওয়া নিষেধ?
(A) পিরহানা মাছ
(B) তেলাপিয়া মাছ
(C) পটকা মাছ